কয়েস লোদীর পক্ষেই হাইকোর্টের রায়

koyasসিলেট : সিলেট সিটি করপোরেশনের (সিসিক) প্যানেল মেয়র-১ রেজাউল হাসান কয়েস লোদীর বিরুদ্ধে সিসিক কাউন্সিলরদের আনা অনাস্থা প্রস্তাব অবৈধ ঘোষণা করেছেন হাইকোর্ট। এছাড়াও রিট পিটিশনের নিষ্পত্তি ঘোষণা করে বিধি অনুযায়ী ভারপ্রাপ্ত মেয়রের দায়িত্ব হস্তান্তর করতে নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট।

বুধবার সকাল সাড়ে ১১টার দিকে হাইকোর্টের ডিভিশন বেঞ্চের বিচারপতি নায়মা হায়দার এবং বিচারপতি মোস্তফা জামান ইসলাম অনাস্থা প্রস্তাবকে অবৈধ ঘোষণা করেন।

গত বছরের ১০ জুন সিসিকের নিয়মিত সভায় ২৯ জন কাউন্সিলরদের মধ্যে ২৬ জন প্যানেল মেয়র-১ রেজাউল হাসান কয়েস লোদীর বিরুদ্ধে অনাস্থা প্রস্তাব আনেন। এর প্রেক্ষিতে কয়েস লোদী হাইকোর্টে রিট পিটিশন (নং ১১৯২৫/২০১৪) দায়ের করেন। আদালত দীর্ঘ শুনানির পর বুধবার এই রিট পিটিশনের রায় দেন।

রায়ে আদালত বলেছেন, গত বছরের ১০ জুন সিসিকের প্যানেল মেয়র-১ রেজাউল হাসান কয়েস লোদীর বিরুদ্ধে আনা অনাস্থা প্রস্তাব অবৈধ এবং এর আইনী ভিত্তি নেই।

এদিকে সিসিকের নির্বাচিত মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী প্রাক্তন অর্থমন্ত্রী শাহ এএমএস কিবরিয়া হত্যা মামলায় অভিযুক্ত হয়ে জেলে যাওয়ায় মন্ত্রণালয় কর্তৃক সাময়িক বরখাস্ত হওয়ার পর গত ৭ জানুয়ারি স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয় জ্যেষ্ঠতার ক্রমানুসারে প্যানেল মেয়র-১ কে সিসিকের ভারপ্রাপ্ত মেয়রের দায়িত্ব পালনের নির্দেশ সংক্রান্ত প্রজ্ঞাপন নং ৪৬.০৭০.০২২.০০০০.২২৮.২০২১-০৮/১(৭) জারি করে। এতে প্যানেল মেয়র-১ হিসেবে সিসিকের ভারপ্রাপ্ত মেয়রের দায়িত্ব পান রেজাউল হাসান কয়েস লোদী।

কিন্তু মন্ত্রণালয়ের এ সিদ্ধান্তকে চ্যালেঞ্জ করে প্যানেল মেয়র-২ অ্যাডভোকেট সালেহ আহমদ চৌধুরী হাইকোর্টে গত ১৯ জানুয়ারি রিট পিটিশন (নং ৩৬৫/২০১৫) দায়ের করেন। আদালত ওই রিট পিটিশনেরও নিষ্পত্তি ঘোষণা করেছেন।

এছাড়া বিচারপতি নায়মা হায়দার ও বিচারপতি মোস্তফা জামান ইসলাম স্থানীয় সরকার আইন-২০০৯ এর ২১ ধারা অনুযায়ী সিসিকের ভারপ্রাপ্ত মেয়রের দায়িত্ব দিতে স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়কে নির্দেশ দিয়েছে।

বুধবার রেজাউল হাসান কয়েস লোদীর পক্ষে আদালতে শুনানিতে অংশগ্রহণ করেন ব্যারিস্টার শাহ মোহাম্মদ এজাজ রহমান, ব্যারিস্টার মোস্তাক আহমদ চৌধুরী ও ব্যারিস্টার আবিদুল হক চৌধুরী। অন্যদিকে সালেহ আহমদ চৌধুরীর পক্ষে শুনানিতে অংশগ্রহণ করেন ব্যারিস্টার ফজলে নুর তাপস ও ব্যারিস্টার মেহদি হাসান চৌধুরী।

সিসিকের প্যানেল মেয়র-১ রেজাউল হাসান কয়েস লোদী জানান, হাইকোর্টের ডিভিশন বেঞ্চ গত বছরের ১০ জুন কাউন্সিলরদের আনা অনাস্থা প্রস্তাবকে অবৈধ ঘোষণা করেছেন। এছাড়া সালেহ আহমদ চৌধুরীর রিট পিটিশনের নিষ্পত্তি ঘোষণা ছাড়াও মন্ত্রণালয়কে সিটি করপোরেশন আইন-২০০৯ এর ২১ ধারা অনুযায়ী ভারপ্রাপ্ত মেয়রের দায়িত্ব হস্তান্তর করতে নির্দেশ দিয়েছেন।

news portal website developers eCommerce Website Design
Close ads[X]