বেরোবির এসিড মামলায় সাত ছাত্রলীগ নেতা বেকসুর খালাস

rongpurএস.এম.আশিকুর রহমান, রংপুর : অবশেষে বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের (বেরোবি) বহুল আলোচিত এসিড মামলার নিষ্পত্তি হলো। মামলার রায়ে বেকসুর খালাস পেয়েছেন বেরোবি শাখা ছাত্রলীগের সাত ছাত্রনেতা। উপাচার্য বিরোধী আন্দোলন চলাকালে শিক্ষকদের উপর এসিড নিক্ষেপের ঘটনার মামলায় অভিযুক্ত বেরোবি শাখা ছাত্রলীগ নেতৃবৃন্দ নির্দোষ প্রমাণিত হওয়ায় রংপুর জেলা ও দায়রা জজ আদালত এই রায় দেয়।

মামলায় নির্দোষ প্রমাণিত হওয়া ছাত্রলীগ নেতারা হলেন বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি মেহেদী হাসান শিশির, সহ-সভাপতি মোহাম্মদ আলী রাজ, সহ-সভাপতি হাদিউজ্জামান হাদী, সহ-সভাপতি রোকনুজ্জামান রোকন, সহ-সভাপতি রাজিব আলী, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সিহাব উদ্দিন।

এসিড নিক্ষেপের ঘটনায় কোন সংশ্লিষ্টতা না পাওয়ায় মামলা দায়েরের দীর্ঘ আড়াই বছর পর সাত ছাত্রলীগ নেতার বিরুদ্ধে করা এই মামলার নিষ্পত্তি হলো।ছাত্রনেতাদের বিরুদ্ধে করা মামলার নিষ্পত্তি এবং ছাত্রনেতৃবৃন্দ বেকসুর খালাস পাওয়ায় বেরোবি ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে এবং বিশ্ববিদ্যালয় সংলগ্ন পার্কের মোড় এলাকায় আনন্দ মিছিল বের করেন।

উল্লেখ্য, বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগ গত ২০১৩ সালের ১০ জানুয়ারি বঙ্গবন্ধুর স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস উপলক্ষে ক্যাম্পাসে আনন্দ মিছিল বের করেছিল। সেই সময় বেরোবির তৎকালীন উপাচার্য ড. মুহাম্মদ জলিল মিয়ার বিরুদ্ধে আন্দোলনরত শিক্ষকবৃন্দ বেরোবির প্রশাসনিক ভবনের দক্ষিণ গেটে অবস্থান করছিলেন। আন্দোলন চলাকালে একদল দুবৃত্ত আন্দোলনরত শিক্ষকবৃন্দের উপর এসিড নিক্ষেপ করলে কয়েকজন শিক্ষক আহত হন।

এ ঘটনায় বেরোবির বাংলা বিভাগের শিক্ষক ড. আবু ছালেহ ওয়াদুদুর রহমান তুহিন বাদী হয়ে বেরোবি শাখা ছাত্রলীগের কিছু নেতৃবৃন্দের বিরুদ্ধে রংপুর কোতোয়ালী থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। বেরোবি শাখা ছাত্রলীগের অভিযুক্ত সাত নেতা নির্দোষ প্রমাণিত হওয়ায় দীর্ঘ আড়াই বছর পর রংপুর জেলা ও দায়রা জজ আদালত তাদেরকে বেকসুর খালাস প্রদান করে মামলার রায় দিল।

news portal website developers eCommerce Website Design