পদ্মার বাঁধে ধস : হুমকির মুখে ২৭ হাজার মানুষ

riverওয়ান নিউজ বিডি, চাঁপাইনবাবগঞ্জ : চাঁপাইনবাবগঞ্জে পদ্মা নদীর বাম তীর সংরক্ষণ প্রকল্পের ২০০ মিটার বাঁধ ধসে গেছে। এতে নদীভাঙনের আশঙ্কায় রয়েছে সদর উপজেলার চরবাগডাঙ্গা ইউনিয়নের ২৭ হাজার মানুষ।

জানা গেছে, প্রায় ২০০ কোটি টাকা ব্যয়ে ২০১৩-১৪ সালে পদ্মা নদীর বাম তীর সংরক্ষণ প্রকল্পের কাজ শেষ হয় চরবাগডাঙ্গা ও সুন্দরপুর ইউনিয়ন অংশে। কিন্তু পানির তোড়ে গত বুধবার ৪ নম্বর বাঁধের প্রায় ৫০ মিটার এবং ১০ নম্বর বাঁধের প্রায় ১৫০ মিটার এলাকা ধসে গেছে।

অন্যদিকে ১০ নম্বর বাঁধের পাশে তীব্র নদীভাঙন দেখা দিয়েছে। মাত্র কয়েক দিনে প্রায় ১৫টি বাড়ি নদীতে তলিয়ে গেছে।

এ ছাড়া হুমকির মুখে রয়েছে গোয়ালডুবি গ্রাম, চরবাগডাঙ্গা ইউনিয়ন পরিষদ অফিস, বাখের আলী ও চরবাগডাঙ্গা বিওপি, গোয়ালডুবি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়সহ একাধিক মসজিদ, মাদ্রসাসহ প্রায় দেড় হাজার বাড়িঘর ও বিস্তীর্ণ ফসলি জমি।

শুক্রবার দুপুরে পানি উন্নয়ন বোর্ডের রাজশাহী বিভাগের তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী মীর মোশারফ হোসেন ও চাঁপাইনবাবগঞ্জ পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী মো. নাসির উদ্দিন ঘটনাস্থল পরিদর্শন করলেও ভাঙন প্রতিরোধে কোনো উদ্যোগ নেননি।

চরবাগডাঙ্গা ইউপি চেয়ারম্যান মো. ওমর আলী জানান, দ্রুত নদীভাঙন প্রতিরোধে উদ্যোগ না নেওয়া হলে তার ইউনিয়নে প্রায় ১২ হাজার বাড়িঘর নদীতে তলিয়ে যাবে। এতে নিঃস্ব হয়ে পড়বে এলাকার ২৭ হাজার মানুষ।

এ ব্যাপারে পানি উন্নয়ন বোর্ডের রাজশাহী বিভাগের তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী মীর মোশারফ হোসেন জানান, অর্থ সংকটে জরুরি ভিত্তিতে ভাঙন প্রতিরোধে কাজ শুরু করা যাচ্ছে না। তবে বিষয়টি ঊর্ধ্বতন মহলে জানানো হয়েছে।

স্থানীয় পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী মো. নাসির উদ্দিন জানান, ভাঙন যেন ভয়াবহ আকার ধারণ করতে না পারে এ জন্য জরুরি ভিত্তিতে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেওয়া হচ্ছে।

news portal website developers eCommerce Website Design