খ্রিস্টান ধর্মপ্রচারককে গলা কেটে হত্যার চেষ্টা

lutওয়ান নিউজ বিডি, পাবনা : জেলার ঈশ্বরদীতে খ্রিস্টান ব্যাপ্টিস্ট মিশনের ধর্মপ্রচারক লুৎ সরকারকে (৫৩) গলা কেটে হত্যার চেষ্টা করেছে দুর্বৃত্তরা। সোমবার সকাল ৯টার দিকে ঈশ্বরদী বিমানবন্দর সড়কের ভাড়া বাসায় ঢুকে হত্যাচেষ্টা চালানো হয়।

আহত লুৎ সরকারের স্ত্রী পদ্মা সরকার জানান, তার স্বামী খ্রিস্টান ব্যাপ্টিস্ট মিশনের পালকের দায়িত্ব পালনের পাশাপাশি হোমিও চিকিৎসক হিসেবে বাসায় প্র্যাকটিস করতেন। প্রতিদিন সকালে তিনি বিভিন্ন ধর্মগ্রন্থ পাঠ করেন। সোমবার সকালে একটি মোটরসাইকেলে করে (ঢাকা মেট্রো-ট ১১-৯০৫৪) অজ্ঞাত তিন যুবক তাদের বাসায় আসে। ধর্মগ্রন্থ পাঠ শোনার কথা বলে তারা ড্রইং রুমে বসে। তিনি পাশের ঘরে গেলে ওই তিন যুবক ভেতর থেকে দরজা বন্ধ করে তার স্বামী লুৎ সরকারের গলায় ছুরিকাঘাত করে। এ সময় চিৎকার শুনে অন্য দরজা দিয়ে তিনি ওই রুমে গেলে তিন যুবক দৌড়ে পালিয়ে যায়। তাদের নাম-পরিচয় কিছুই জানেন না বলে জানিয়েছেন পদ্মা সরকার।

বাড়ির মালিক মনিরুল ইসলাম জানান, চিৎকার শুনে স্থানীয়রা লুৎ সরকারকে মুমূর্ষু অবস্থায় উদ্ধার করে ঈশ্বরদী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। চিকিৎসকরা জানিয়েছেন, লুৎ সরকারের গলায় কয়েকটি সেলাই দেওয়া হয়েছে। তিনি এখন আশঙ্কামুক্ত।

বাড়ির কেয়ারটেকার আজগর আলী জানান, ওই তিন যুবককে ধাওয়া করে একজনকে জাপটে ধরলে অন্য দুজন তাকে ছাড়িয়ে নিয়ে মোটরসাইকেল রেখেই দ্রুত পালিয়ে যায়। সে সময় বাড়ির সামনে প্রচুর লোক জড়ো হলেও যুবকদের হাতে দেশি অস্ত্র থাকায় কেউ তাদের সামনে যাওয়ার সাহস করেনি।

ঈশ্বরদী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) বিমান কুমার দাশ জানান, খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে সেখান থেকে মোটরসাইকেলটি জব্দ করেছে। এ ঘটনায় ঈশ্বরদী থানায় একটি মামলা দায়েরের প্রক্রিয়া চলছে।

পাবনার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. সিদ্দিকুর রহমান জানান, আহত লুৎ সরকার পাবনার সাঁথিয়া উপজেলার স্থায়ী বাসিন্দা। তিনি ৫ বছর ধরে ঈশ্বরদী বিমানবন্দর সড়কের মনিরুল ইসলামের বাড়ি ভাড়া নিয়ে পরিবারসহ বসবাস করে আসছেন। পাশাপাশি তিনি ধর্ম প্রচার করছিলেন। তবে কারা, কী জন্য তাকে হত্যার চেষ্টা করেছে তা খতিয়ে দেখছে পুলিশ। জড়িতদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

news portal website developers eCommerce Website Design
Close ads[X]