মন্ত্রী আনিসুল ইসলামের বিচার দাবি করলেন এরশাদ

ওয়ান নিউজ, শেরপুর : সাবেক রাষ্ট্রপতি ও জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান এইচএম এরশাদ বলেছেন, দেশে অবৈধভাবে ফখরুদ্দীন-মইনকে ক্ষমতায় আনার পেছনে ডেইলি স্টারের সম্পাদক মাহফুজ আনামসহ যে ক’জনের নাম এসেছে তাদের সঙ্গে আরেকজনের নাম সংযোজন করতে হবে। তিনি হচ্ছেন, আমার দলের প্রেসিডিয়ামের সদস্য মন্ত্রী ব্যারিস্টার আনিসুল ইসলাম মাহমুদ।

রোববার বিকেল চারটায় শেরপুর জেলা শিল্পকলা একাডেমী মিলায়তনে জেলা জাতীয় পার্টির দ্বি-বার্ষিক সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্য তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি সে সময় আমাকে সরিয়ে অবৈধভাবে দলের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান হয়েছিলেন।

তিনি মন্ত্রী আনিসুল ইসলাম মাহমুদকে ‘বেঈমান’, ‘কুচক্রী’, ওয়ান ইলেভেনের কুশীলব হিসেবে অভিহিত করে বলেন, আমি ১/১১ হোতাদের সঙ্গে তারও বিচার দাবি করছি।

এরশাদ আরো বলেন, জিএম কাদেরকে দলের পরবর্তী নেতা হিসেবে গড়ে তোলার জন্য ইতোমধ্যে কো-চেয়ারম্যান হিসেবে মনোনীত করেছি। আমার অবর্তমানে সেই পার্টি পরিচালনা করবে।

জেলা জাতীয় পার্টির সভাপতি আলহাজ মো. ইলিয়াছ উদ্দিনের সভাপতিত্বে সম্মেলনে বিশেষ অতিথি জাতীয় পার্টির কো-চেয়ারম্যান জিএম কাদের, প্রধান বক্তা মহাসচিব রহুল আমিন হাওলাদার এমপি এবং কেন্দ্রীয় ও স্থানীয় নেতৃবৃন্দ বক্তব্য রাখেন।

সম্মেলনে প্রায় ২ হাজার কাউন্সিলর ও ডেলিগেটস অংশগ্রহণ করেন। জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান এরশাদ পরে নতুন কমিটির সভাপতি হিসেবে ইলিয়াছ উদ্দিন ও সাধারন সম্পাদক হিসেবে শফিকুল ইসলাম ঠান্ডার নাম ঘোষণা করেন। এসময় পৌর মিলনায়তনজুড়ে নেতাকর্মীরা করতালি দিয়ে তাদের অভিনন্দিত করেন।

দলীয় নেতাকর্মীরা জানান, ২০১৩ সালের জানুয়ারি মাসে জেলা জাতীয় পার্টির সর্বশেষ সম্মেলন হয়েছিলো।