নরসিংদীতে চাষ হচ্ছে আমিরাতের খেজুর

treeনরসিংদী প্রতিনিধি : নরসিংদীর বেলাব উপজেলায় এখন চাষ হচ্ছে বিদেশী আরব আমিরাতের খোরমা খেজুর। জেলার বেলাব উপজেলার চরকাশিম নগর গ্রামে সরজমিনে দেখা যায় কৃষক তাজুল ইসলাম ২বিঘা জমিতে আরব আমিরাত থেকে খালাছা, সেজরি, নাখাল ও বেরহিসহ ৪ জাতের খেজুর বীজ ও চারা এনে তিন বছর আগে নিজ জমিতে রোপন করেন। বর্তমানে চারা গাছ প্রায় ৪/৫ ফুট লম্বা হয়েছে, প্রতিটি চারায় ব্যয় হয়েছে ১ থেকে দেড়‘শ টাকা করে, বিক্রি হচ্ছে ৫’শ থেকে ১ হাজার টাকা ধরে। প্রতিটি চারায় তার আয় হচ্ছে ৩ থেকে ৪‘শ টাকা করে।

কৃষক তাজুল  ইসলাম বলেন, ‘ টানা ১৪ বছর আরব আমিরাতের দুবাইয়ে একটি খেজুর বাগানে চাকরি করেছি। সেই অভিজ্ঞতাকে কাজে লাগিয়ে নিজেকে সাবলম্ভী করতে ২ বিঘা জমির উপর ১৫ হাজার  খেঁজুরের চারা রোপন করি। যদি ভাল ফলন হয়, তাহলে ১৪ বছর আরব আমিরাতে  থেকে যে অর্থ আয় করেছি চারা ও খেজুর বিক্রি করে ২ বছরেই, সেই অর্থ রোজগার করা সম্ভব।

’অন্যদিকে তাজুল ইসলামের  খেজুর বাগান দেখে আশপাশের এলাকা থেকে অনেক কৃষকরাই খেজুর চারা দেখে কেনার আগ্রহপ্রকাশ করে। তারাও বাগান করার ইচ্ছা পোষণ করেন। বেলাব উপজেলা কৃষি অফিসার  দীপক কুমার দাস জানান, বিদেশ থেকে খেজুর আমদানি না করে আমরা যদি নিজেরা খেজুর উৎপাদন করতে পারি তাহলে আমাদের বৈদেশিক মুদ্রা সাশ্রয় হবে।

আমাদের দেশে যে খেজুর উৎপাদন হয়, তা থেকে সৌদি আরবের খেজুর বড় ও সুমিষ্ট এবং আমাদের দেশের মাটি তা উৎপাদনের জন্য উপযুক্ত। ইতিমধ্যে এলাকায় অনেক কৃষকরা তাজুল ইসলামের এ উদ্যোগে অনুপ্রাণিত হয়ে খেজুর চাষে আগ্রহী হয়ে উঠছেন। আরব আমিরাতের খেজুর ভালোভাবে ফলাতে পারলে বিদেশে যেতে হবে না বাংলাদেশেই সেই অর্থ উপার্জন করা সম্ভব হবে। তাই খেজুর চাষে আগ্রহী করতে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ কৃষকদের প্রশিক্ষণের মাধ্যমে সার্বিক সহযোগিতার প্রয়োজন মনে করেন কৃষকরা।

news portal website developers eCommerce Website Design