জয়পুরহাটে বন্দুক যুদ্ধে ২ সন্ত্রাসী নিহত

জয়পুরহাট প্রতিনিধি : জয়পুরহাট সদর উপজেলার ভাদশা ইউনিয়নের কোঁচকুরি-গোপালপুর এলাকায় পুলিশের সাথে কথিত বন্দুকযুদ্ধে ২ সন্ত্রাসী নিহত হয়েছে। এ ঘটনায় ২পুলিশ সদস্য আহত হয়েছেন। ঘটনাস্থল থেকে ১টি পিস্তল, ২রাউন্ড গুলি, ১টি ম্যাগাজিনসহ দেশীয় অস্ত্র উদ্ধার করেছে পুলিশ।

নিহতরা হলো- সদর উপজেলার ছাওয়ালপাড়া গ্রামে নুরুল ইসলামের ছেলে সোহেল রানা এবং কোঁচকুরি গ্রামের লুৎফর রহমানের ছেলে মনির হোসেন। নিহতরা সদর উপজেলার ভাদশা ইউনিয়নের নবনির্বাচিত চেয়ারম্যান এ কে আজাদ হত্যা মামলার অন্যতম আসামী।

সহকারী পুলিশ সুপার (সার্কেল) অশোক কুমার পাল জানান, সন্ত্রাসীদের গুলি ও ছুরিকাহতে নিহত সদর উপজেলার ভাদশা ইউনিয়নের নবনির্বাচিত চেয়ারম্যান এ কে আজাদের বাড়িতে হামলার উদ্দেশ্যে একদল সন্ত্রাসী কোঁচকুরি-গোপালপুর এলাকায় সমেবেত হয়েছে, এমন খবরে মঙ্গলবার ভোর রাতে পুলিশ ঘটনাস্থলে গেলে সস্ত্রাসীরা পুলিশের উপর হামলা চালায় এবং পুলিশকে লক্ষ্য করে এলাপাথাড়ী গুলি ছোঁড়ে। এসময় আত্নরক্ষার্থে পুলিশও পাল্টা গুলি ছোঁড়ে। পরে ঘটনাস্থল থেকে ওই দুইজনের গুলিবিদ্ধ লাশ উদ্ধার করে পুলিশ।

বন্দুক যুদ্ধে নিহত সন্ত্রাসীদের বিরুদ্ধে চেয়ারম্যান আজাদকে হত্যাসহ ছিনতাই, চাঁদাবাজী বিভিন্ন ধরনের সন্ত্রাসী কর্মকান্ডের অভিযোগ রয়েছে বলেও পুলিশ জানিয়েছে।

news portal website developers eCommerce Website Design