নেত্রকোনায় বিএনপি-আ’লীগের ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া, সার্কেল এএসপি সহ আহত ৩

netrokona map

নেত্রকোনা: নেত্রকোনার দূর্গাপুর উপজেলায় বিএনপি’র সদস্য সংগ্রহ অভিযানকে কেন্দ্র করে বিএনপি ও আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের মধ্যে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ার সময় পুলিশের সার্কেল এএসপি সহ ৩ সদস্য আহত হন। এ ঘটনায় উপজেলা বিএনপি’র সভাপতি জহিরুল আলম ভূইয়াকে আটক করেছে পুলিশ। শুক্রবার দুপুরে দুর্গাপুর উপজেলার কাচারী রোডে পৌরসভার সামনে এ ঘটনা ঘটে।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, দূর্গাপুর উপজেলার কাচারী রোডে পৌরসভা কার্যালয়ের সামনে পৌর বিএনপি’র সভাপতি ফজলুর রহমান রনুর বাসায় বিএনপি সদস্য সংগ্রহ অভিযান কার্যক্রম শুরু করে। এতে অংশগ্রহণকারী নেতাকর্মীরা পৌরসভার সামনে জমায়েত হলে তাতে আওয়ামী লীগ বাঁধা দেয়। বাঁধা দেয়াকে কেন্দ্র করে আওয়ামী লীগ বিএনপি’র মধ্যে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটে। এ সময় পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে গিয়ে দূর্গাপুর সার্কেল এএসপি শাহ শিবলি সাদিকসহ আরো দু’জন পুলিশ সদস্য আহত হয়। দূর্গাপুর থানা পুলিশ এসময়  কয়েক রাউন্ড ফাকা গুলিবর্ষণ করে।

এ ব্যাপারে দূর্গাপুর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আওয়ামী লীগ নেতা এমদাদ খান জানান, আওয়ামী লীগ কোন বাঁধা দেয় নি। বিএনপিতেই অনেকগুলো গ্রুপ। তাদের সৃষ্ট ঝামেলা এটি।

আহত অতিরিক্ত পুলিশ সুপার দূর্গাপুর সার্কেল শাহ শিবলি সাদিক বলেন, বিএনপির পৌর সভাপতির বাসায় অল্প পরিসরে প্রোগ্রাম করার অনুমতি ছিল। বড় জমায়েত করার জন্য নিষেধ করা হয়। কিন্তু অল্প সময়ের মধ্যেই তারা পৌর সভার সামনে ব্যাপক জমায়েত করে ফেলে। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীরা বাঁধা দিলে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটে। আমরা পরিস্থিতি থামাতে গিয়ে আহত হই। তবে কোন বড় ধরনের ঘটনা ঘটেনি। এসময় কয়েক রাউন্ড ফাঁকা গুলি ছোড়া হয়। পরিস্থিতি স্বাভাবিক রয়েছে। একজন আটক আছে।

news portal website developers eCommerce Website Design