মেধা পাচার নিয়ে এখনই ভাবতে হবে : প্রধান বিচারপতি

SK sinha

মৌলভীবাজার: প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহা বলেছেন, প্রতি বছর উচ্চ শিক্ষার জন্য দেশ থেকে কয়েক হাজার মেধাবী ছেলে মেয়ে বিদেশে গিয়ে উচ্চ শিক্ষা নিচ্ছে। পরবর্তীতে সেখানে তারা মেধার স্বাক্ষর বহন করে চাকরি ও নাগরিকত্ব গ্রহণ করে আর দেশে ফিরছে না। এ মেধা পাচার নিয়ে এখনই আমাদের ভাবতে হবে এবং এটা বন্ধ করতে হবে। এজন্য সরকারের পাশাপাশি উন্নত শিক্ষা প্রতিষ্ঠান গড়ে তুলতে দেশের বিত্তবানদের এগিয়ে আসার আহ্বান জানান তিনি।

বৃহস্পতিবার মৌলভীবাজার জেলা আইনজীবী সমিতির ১নং বার ভবনের ভিত্তি প্রস্থর স্থাপন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

প্রধান বিচারপতি আরও বলেন, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বাংলাদেশকে স্বাধীনতা এনে দিয়েছিলেন বলে দেশের প্রত্যন্ন এলাকার উন্নয়ন হয়েছে এবং আমি প্রধান বিচারপতি হতে পেরেছি।

তিনি বলেন, অর্থনৈতিক উন্নয়নের সাথে সাথে পৃথিবীর আইনকানুন পরিবর্তন হচ্ছে। তাই বাংলাদেশের আইন আধুনিক ও যুগোপযোগী করতে হবে। উদাহরণ হিসেবে তিনি বলেন, সাইবার ক্রাইম করে বাংলাদেশ ব্যাংক এর রিজার্ভ থেকে কোটি কোটি টাকা বিদেশে পাচার হয়েছে। আমি প্রধান বিচারপতি হয়েও আমার সাইবার ক্রাইম বিষয়ে শিক্ষা নেই। আমাদের আইনজীবী ও বিচারকদের সাইবার ক্রাইম ল’ বিষয়ে লেখাপড়া নেই। তাই এসব বিষয় চিন্তা করে বাংলাদেশের আইন আধুনিক ও যুগোপযোগী করতে সরকারের প্রতি অনুরোধ জানান প্রধান বিচারপতি।

জেলা আইনজীবী সমিতির সভাপতি এডভোকেট রনজিত কুমার ঘোষের সভাপতিত্বে ও সাধারন সম্পাদক এডভোকেট মিজানুর রহমানের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য রাখেন  জেলা ও দায়রা জজ শেখ আবু তাহের, জেলা প্রশাসক মো. তোফায়েল ইসলাম, চীফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট এ জি এম আল মাসুদ। এছাড়া জেলা আইনজীবী সমিতির সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।

news portal website developers eCommerce Website Design