নড়াইলের জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান-মেয়রসহ ৮ জনপ্রতিনিধিকে কারাদন্ড

court jessore adalot

স্টাফ রিপোর্টার, যশোর: দুর্নীতির মামলায় নড়াইলের জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান এডভোকেট সোহরাব হোসেন ও পৌর মেয়র জাহাঙ্গীর বিশ্বাসসহ ৮ জন প্রতিনিধিকে সাত বছরের সশ্রম কারাদন্ড ও এক লাখ ৯৬ হাজার টাকা অর্থদন্ড দিয়েছে আদালত।

মঙ্গলবার দুপুরে স্পেশাল জজ আদালতের বিচারক নিতাই চন্দ্র সাহা এ রায় ঘোষণা করেন। দন্ডিতদের মধ্যে জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান এডভোকেট সোহরাব হোসেন পলাতক রয়েছেন। অন্যদের রায় ঘোষণা শেষে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দিয়েছেন বিচারক।

মামলার পাবলিক প্রসিকিউটর সিরাজুল ইসলাম জানিয়েছেন, ২০০৪-০৫ অর্থবছরে আসামি সোহরাব হোসেন নড়াইল পৌরসভার মেয়র ছিলেন। ওই সময় রুপগঞ্জ পশুহাট ইজারার দরপত্র আহবান করা হয়। এইচএম সোহেল রানা পলাশ নামে এক ব্যক্তি সর্বোচ্চ ৬৫ হাজার ৫৫৫ টাকায় ওই হাটের ইজারা পান। তিনি দরপত্রের নিয়ম অনুযায়ী বিডি হিসেবে ৩৩ হাজার টাকা জমা দেন। পরবর্তীতে তিনি দরপত্র মূল্য দিতে অপরাগতা প্রকাশ করে ইজারা থেকে অব্যাহতির আবেদন করেন। ওই আবেদনে অপর আসামি তৎকালিন পৌর কমিশনার জাহাঙ্গীর বিশ্বাসসহ ৬জন কমিশনার ও ভারপ্রাপ্ত সচিব সুপারিশ করেন। মেয়র হিসেবে সোহবার হোসেন তা মঞ্জুর করেন। এরপর ইজারাদাতাকে তার জমাকৃত টাকা ফেরত দেয়া হয়। একইসাথে নতুন করে ইজারার আহবান না করে সকলে অবৈধভাবে লাভবান হওয়ার উদ্দেশ্যে ওই হাট তিনবছর ধরে খাস দেখিয়ে ১ লাখ ৯৬ হাজার টাকা আদায় করেন এবং সমুদয় অর্থ আত্মসাৎ করেন।

এ ঘটনায় দুর্নীতি দমন সমন্বিত কার্যালয় যশোরের সহকারী পরিচালক ওয়াজেদ আলী বিশ্বাস ২০০৮ সালের ৭ আগস্ট ৮জনকে আসামি করে নড়াইল সদর থানায় মামলা করেন। দীর্ঘ বিচার প্রক্রিয়া শেষে আজ মঙ্গলবার বিচারক প্রত্যেক আসামিকে ৭ বছর করে সশ্রম কারাদন্ড ও আত্মসাৎকৃত টাকা জরিমানা অনাদায়ে আরো ৬ মাসের বিনাশ্রম কারাদন্ডের নির্দেশ দেন।

news portal website developers eCommerce Website Design
Close ads[X]