ফল ও সবজি থেকে বিষ মুক্ত করার যন্ত্রের উদ্ভাবোন করলেন যশোরের কৃষি গবেষক মৃধা

food care of serazul islam meradha

food care of serazul islam meradhaস্টাফ রিপোর্টার: স্বল্পমূল্যে শাকসবজী কিম্বা ফলমূল থেকে ক্ষতিকর রাসায়নিক পদার্থ ও জীবাণু দূর করা সম্ভব। একই যন্ত্রের মাধ্যমে সম্ভব মাংসের অতিরিক্ত চর্বিও বাদ দেয়া। এমনকি ওই যন্ত্র ব্যবহারের মাধ্যমে শাকসবজী ও ফলমূলের দ্রুত পচনরোধ করা যাবে বলে জানিয়েছেন গবেষকরা। ফুড কেয়ার নামে এমনই একটি যন্ত্রের উদ্ভাবন করেছেন যশোরের সিরাজুল ইসলাম মৃধা।
গবেষকরা বলছেন, যন্ত্রটি ব্যবহারে কৃষি প্রধান এদেশে অপার সম্ভাবনার সুযোগ রয়েছে। এর আগে তিনি সুলভে মাটি ছাড়া ঘাস চাষ করে সাড়া ফেলন।

যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ল্যাবে তার ওজন জেনারেটর ফুড কেয়ার যন্ত্রেও পরীক্ষাতে দেখা গেছে যন্ত্রটি দিয়ে মাত্র ৫ মিনিটেই ফল ও শাক সবজি থেকে বিষ মুক্ত করা সম্ভাব। যন্ত্রটি দিরেয় মাংশ থেকে চর্বি ছাড়ানো সহ খাদ্য থেকে সালমোলেনা ইকোলাইসহ প্যাথোজেন দুর করা সম্ভাব।

এ ব্যাপারে যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের বায়োলজি সাইন্স ডিপার্টমেন্টের ডিন ড. মোঃ ইকবাল কবির জাহিদ বলেন, আমি যন্ত্রটি দিয়ে পরীক্ষা নিরিক্ষা করে দেখেছি যন্ত্রটি দ্বারা ওজনের মাধ্যম্যে অক্সিজেনে রপান্তর করে যে ট্রিটমেন্ট হয় তাতে ৯০ থেকে ৯৫ ভাগ মাইক্রোওর্গানিজম ধ্বংশ হয়ে যায়, ফলে যন্ত্রটি দিয়ে খুব সহজে ফল ও সবুজ শাক সবজি থেকে ফর্মালিনসহ বিভিন্ন প্রকার বিষ মুক্ত করতে পারে।
তিনি বলেন, ফুড কেয়ার যন্ত্রটি ব্যবহারের মাধ্যমে শুধু জীবাণু কিম্বা রাসায়নিক পদার্থই ধ্বংস হবে না, একই পদ্ধতি ব্যবহারে শাকসবজি, ফলমূল দ্রুত পচনের হাত থেকেও রক্ষা পাবে। এ পদ্ধতি ব্যবহারের মাধ্যমে বিভিন্ন সংক্রামক রোগব্যাধি থেকে মানবদেহকে মুক্ত রাখা সম্ভব বলে দাবি এ গবেষকের।

তিনি বলেন, সিরাজুল ইসলাম মৃধার উদ্ভাবনটি দেশের জন্য ভালো কিছু বয়ে আনবে। তিনি সরকারের কাছে নিজেই এ ব্যাপারটি তুলবেন যাতে সিরাজুল ইসলাম মৃধা তার উদ্ভাবনি কার্যক্রম এগিয়ে নিতে পারেন।

এ ব্যাপারে উদ্ভাবক সিরাজুল ইসলাম মৃধা জানান, উদ্ভাবিত যন্ত্রের মাধ্যমে বাতাস থেকে ইলেকট্রিক সার্কিটের সহযোগিতায় o3 গ্যাস তৈরি হয়। যা যন্ত্রের বর্হিগমন পাইপের মাধ্যমে স্বচ্ছ পানিতে রাখা শাকসবজি, ফলমূলে থাকা সালমন এলা, ইকোলাইসহ বিভিন্ন ব্যকটেরিয়া, ফাংগাসসহ ক্ষতিকর রাসায়নিক পদার্থ দূর করে। এছাড়াও মাংসের ভেতর থাকা অপ্রয়োজনীয় চর্বিও o3 গ্যাসের মাধ্যমে পৃথক করা সম্ভব।

সিরাজুল ইসলাম জানান, উন্নত দেশগুলোতে শাকসবজি, ফলমূল, মাছ, মাংস থেকে ক্ষতিকর পদার্থ দূরীকরণে o3 গ্যাস ব্যাবহার করা হয়। কিন্তু সেসব দেশে ব্যবহৃত ভাল মানের যন্ত্রের মূল্য সাধারণ মানুষের নাগালের বাহিরে। কিন্তু বাংলাদেশের আর্থসামাজিক প্রেক্ষাপটে মান অক্ষুন্ন রেখে যন্ত্রটিকে সাধারণের দোরগোড়ায় পৌঁছে দিতে ব্যবহার করা হয়েছে বেশকিছু সহজলভ্য প্রযুক্তি। এর মাধ্যমে বাসাবাড়িতে ব্যবহারের জন্য প্রতিবারে ১শ’ গ্রাম থেকে ৪ কেজি পর্যন্ত শাকসবজি, ফলমূল, মাছ, মাংস জীবাণুমুক্ত করার জন্য ফুড কেয়ার যন্ত্রটির খরচ পড়বে প্রায় ৮ হাজার টাকা। অন্যদিকে, বড় পরিসরে প্রতিবারে ১ থেকে ৩০ কেজি পর্যন্ত জীবাণুমুক্ত করার জন্য নির্মিত যন্ত্রটির খরচ পড়বে প্রায় ৩০ হাজার টাকা।

তিনি আরো বলেন, বর্তমান সময়ে বাংলাদেশের বড় সমস্যা হলো নিরপদ খ্যাদ্য আর এ নিরাপদ খাদ্যের অন্তরায় অধিক ফলনশীল খাদ্য উৎপাদনে মাত্রারিক্ত কিটনাশক ও সংরক্ষন ও পরিবহনের জন্য ফরমালিনের ব্যবহার।
এ থেকে পরিত্রানের জন্য আমার ফুড কেয়ার যন্ত্রের উদ্ভাবন।

তিনি বলেন, দেশের প্রত্যেকটি বড় বড় হোটেল রেস্টুরেন্টে যদি এই মেসিন দ্বারা খাদ্যের বিষ মুক্ত করে নেওয়া যায় তাহলে দেশের মানুষ অনেকাংশে স্বাস্থ ঝুকি এড়াতে পারবে।

তিনি বলেন, আমার স্বপ্ন দেশের প্রত্যেক রান্না ঘরে এ্ই ফুড কেয়ার পেীছে দেবো, যাতে মানুষ সুস্থ থাকতে পারে।

কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের কৃষি কর্মকর্তা খালিদ সাইফুল্লাহ বলেন, শাকসবজি কিম্বা ফলমূল সংরক্ষণ কিম্বা পরিবহনের ক্ষেত্রে একটি বড় অংশই নষ্ট হয়। কিন্তু o3 গ্যাস পদ্ধতি ব্যবহারের মাধ্যমে কৃষক ও ব্যবসায়ীরা মোটা অংকের আর্থিক ক্ষতি এড়াতে সক্ষম হবেন। যা কৃষি প্রধান এদেশের জন্য অপার সম্ভাবনার দ্বার উন্মোচিত করবে বলে মনে করেন এ কৃষি কর্মকর্তা।

news portal website developers eCommerce Website Design
Close ads[X]