রংপুর সিটি নির্বাচনে আ. লীগের মনোনয়ন পেলেন ঝন্টু

jhontu

jhontuডেস্ক রিপোর্ট: আসন্ন রংপুর সিটি করপোরেশন নির্বাচনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী হিসেবে মনোনয়ন পেয়েছেন বর্তমান মেয়র সরফুদ্দীন আহম্মেদ ঝন্টু। শনিবার (১১ নভেম্বর) সন্ধ্যায় গণভবনে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন বোর্ডের সভায় এই সিদ্ধান্ত চূড়ান্ত হয়েছে। আগামী ২১ ডিসেম্বর এই নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।

বোর্ডের একাধিক সদস্যর ও দলটির পক্ষ থেকে সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্যএ জানানো হয়। প্রধানমন্ত্রীর সরকারি বাসভবন গণভবনে অনুষ্ঠিত সভায় সভাপতিত্ব করেন দলীয় সভাপতি শেখ হাসিনা।

আওয়ামী লীগের মনোনয়ন পাওয়া এই মেয়র এর আগে নির্দলীয়ভাবে নির্বাচিত হয়েছিলেন। রংপুর সিটি নির্বাচন এবারই প্রথম দলীয়ভাবে অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে। এর আগের নির্বাচনে আওয়ামী লীগ ঝন্টুকে সমর্থন দিয়েছিল।

এবার আওয়ামী লীগের উপদেষ্টামণ্ডলীর সদস্য চৌধুরী খালেকুজ্জামান, মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি শাফিয়ার রহমান, সাধারণ সম্পাদক তুষার কান্তি মণ্ডল, রংপুর আওয়ামী লীগের কোষাধ্যক্ষ ও রংপুর চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রিজের সাবেক সভাপতি আবুল কাশেম, রংপুর মেট্রোপলিটন চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রিজের সভাপতি রেজাউল ইসলাম মিলন, রংপুর মুক্তিযোদ্ধা সংসদের কমান্ডার মোছাদ্দেক হোসেন বাবলু, আওয়ামী লীগ নেতা ইলিয়াছ আহাম্মেদ, রংপুর-৫ আসনের সংসদ সদস্য এইচ এম আশিকুর রহমানের ছেলে রাশেক রহমানসহ ১৬ জন দলীয় প্রতীক নৌকা পেতে আবেদন করেছিলেন।

সন্ধ্যায় গণভবনে রংপুর সিটি করপোরশেন নির্বাচনের মনোনয়ন প্রত্যাশীদের সাক্ষাৎকার নেয় আওয়ামী লীগ। সাক্ষাৎকার শেষে স্থানীয় সরকার মনোনয়ন বোর্ডের সভায় ঝন্টুকে নৌকার প্রার্থী হিসাবে মনোনয়ন দেওয়া হয়।

নির্বাচন কমিশনের ঘোষিত তফসলি অনুযায়ী আগামী ২১ ডিসেম্বর রাসিকের নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। নির্বাচনে মনোনয়নপত্র দাখিলের শেষ সময় নির্ধারণ করা হয়েছে আগামী ২২ নভেম্বর। মনোনয়নপত্র যাচাই-বাছাই করা হবে ২৫ ও ২৬ নভেম্বর। প্রার্থীতা প্রত্যাহার ৩ ডিসেম্বর এবং প্রতীক বরাদ্দ দেওয়া হবে ৪ ডিসেম্বর।

২০১২ সালে রংপুর পৌরসভা সিটি করপোরেশনে উন্নীত হওয়ার পর প্রথম নির্বাচনে ঝন্টু জিতেছিলেন ২৭ হাজার ভোটের ব্যবধানে। গত নির্বাচনে পরাজিত মোস্তাফিজার রহমান মোস্তফাকে এরই মধ্যে দলীয় প্রার্থী হিসাবে ঘোষণা দিয়েছে জাতীয় পার্টি।

প্রসঙ্গত, ১৯৮৭ সালে প্রথম উপজেলা নির্বাচনে অংশগ্রহন করে প্রথম উপজেলা চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন সরফুদ্দীন আহম্মেদ ঝন্টু। এরপর ১৯৯২ সাল থেকে ১৯৯৮ সাল পর্যন্ত রংপুর পৌরসভা চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন। ১৯৯৬ সালে জাতীয় নির্বাচনে অংশগ্রহণ করেন এবং সংসদ সদস্য নির্বাচিত হয়েছিলেন।

news portal website developers eCommerce Website Design