ছাত্রলীগের স্কুল কমিটির নেতা হয়েই শিক্ষক পেটাল শান্ত

student lig logo

পিরোজপুর: পিরোজপুরের নাজিরপুরে স্কুলশিক্ষককে মারধরের ঘটনায় শাহ আমানত শান্ত নামে মাধ্যমিক বিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগ সভাপতিকে বহিষ্কার করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার শান্তকে বহিষ্কার ছাড়াও স্কুল কমিটি বিলুপ্ত ঘোষণা করেছে ছাত্রলীগ।

সম্প্রতি দেশের সব স্কুলে কমিটি গঠন করার সিদ্ধান্ত নেয় ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের সহযোগী সংগঠন বাংলাদেশ ছাত্রলীগ। এরই অংশ হিসেবে শান্তকে নাজিরপুর শ্রীরামকাঠি ইউজেকে মাধ্যমিক বিদ্যালয় শাখার সভাপতি করা হয়।

সে বিদ্যালয়ের চলতি বছরের এসএসসি পরীক্ষার্থী এবং শ্রীরামকাঠী ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি আলী হায়দার মৃধার ছেলে।

মাদক সেবনের প্রতিবাদ এবং এসএসসির টেস্ট পরীক্ষায় হাতেনাতে নকল ধরায় বুধবার সন্ধ্যায় সহযোগীদের নিয়ে বিদ্যালয়ের শিক্ষক সন্তোষ দেউরীকে মারধর করে শান্ত। পরে স্থানীয় তাকে উদ্ধার করে পিরোজপুর সদর হাসপাতালে ভর্তি করেন।

আহত শিক্ষক সন্তোষ দেউরী বলেন, ‘বুধবার সন্ধ্যা ছয়টার দিকে শ্রীরামকাঠী বন্দরে নিজ বাসায় দুই ছাত্রকে পড়াচ্ছিলাম। এ সময় শান্ত তার কয়েকজন বন্ধুকে নিয়ে বাসায় ঢুকে আমাকে মারধর করে।’

তিনি অভিযোগ করেন, ‘মাদক সেবনের প্রতিবাদ ও এসএসসির টেস্ট পরীক্ষায় নকল ধরায় শান্ত আমার ওপর ক্ষিপ্ত ছিল।’

নাজিরপুর উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি তানভীর হাসান ডালিম বলেন, ‘বিষয়টি জানতে পেরে তাৎক্ষণিকভাবে ওই বিদ্যালয়ের ছাত্রলীগের কমিটি বিলুপ্ত এবং সভাপতি শাহ আমানত শান্তকে সংগঠন থেকে বহিষ্কার করা হয়েছে।’

বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক রমেন্দ্র নাথ জানান, বিষয়টি গুরুতর। সবাইকে নিয়ে বসে তারা শান্তর বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেবেন।

news portal website developers eCommerce Website Design
Close ads[X]