এবার রাঙ্গামাটিতে আ’লীগ নেতাকে গুলি করে হত্যা

orbindo chakma rangamati ligরাঙ্গামাটি: রাঙ্গামাটির জুরাছড়ি উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক অরবিন্দ চাকমাকে (৪৫) গুলি করে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা। একই সময় হত্যার উদ্দেশে বিলাইছড়ি উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি রাসেল মার্মাকেও (৫০) পিটিয়ে গুরুতর আহত করা হয়েছে।

মঙ্গলবার রাত পৌনে আটটার দিকে উপজেলার সুভলং খাগড়াছড়ি নিন্ম মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সিঁড়ির সামনে অরবিন্দ চাকমাকে গুলি করে হত্যা করা হয়েছে বলে নিশ্চিত করেছেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি প্রবর্তক চাকমা।

তাৎক্ষণিকভাবে এ ঘটনার জন্য কাউকে দায়ী না করে তিনি বলেন, আমরা বিষয়টি সম্পর্কে বিস্তারিত খোঁজ নিয়ে নিজেদের অবস্থান ও বক্তব্য জানাব।

জুরাছড়ি থানার ওসি আব্দুল বাসেদ জানান, পুলিশ ঘটনাস্থলে গেছে। সেখান থেকে না ফেরা পর্যন্ত বিস্তারিত বলা যাচ্ছে না।

এদিকে, একই সময় বিলাইছড়ি উপজেলা আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি রাসেল মার্মার ওপর হামলা করেছে দুর্বৃত্তরা। গুরুতর আহত রাসেল মার্মাকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।

রাঙ্গামাটি জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক হাজি মো. মুছা মাতব্বর দুটি ঘটনার জন্যই সন্তু লারমার নেতৃত্বাধীন পার্বত্য চট্টগ্রাম জনসংহতি সমিতিকে দায়ী করেছেন। এই ঘটনার প্রতিবাদে বুধবার বিকেল তিনটায় রাঙ্গামাটিতে বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশের ডাক দিয়েছে জেলা আওয়ামী লীগ।

তবে আওয়ামী লীগের অভিযোগ অস্বীকার করে জনসংহতি সমিতির মুখপাত্র সজীব চাকমা জানান, আমি এই ধরনের কোনো ঘটনার খবর জানি না। আর এই ধরনের কোনো ঘটনার সঙ্গে জনসংহতি সমিতি জড়িত থাকার প্রশ্নই আসে না।

এর আগে সকালে জেলার নানিয়ারচর উপজেলায় ইউপিডিএফ সমর্থক অনাদী রঞ্জন চাকমাকে গুলি করে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা।

news portal website developers eCommerce Website Design