কালাইয়ে পুলিশের মারপিটে নিহত ব্যবসায়ীর লাশ ২ মাস পর কবর থেকে উত্তোলন

kabor news

kabor newsচঞ্চল বাবু,কালাই(জয়পুরহাট): জয়পুরহাটের কালাইয়ে নারী ও শিশু নির্যাতন মামলার পলাতক আসামী মেহেদী হাসান শাপলাকে উপজেলার হারুঞ্জা গ্রামে ধরতে গিয়ে তাকে না পেয়ে পুলিশের মারপিটে চাচা ব্যবসায়ী সাইদুর রহমান (৩২) নিহতের ঘটনায় দাফনের ২ মাসের মাথায় লাশ ২য় বার ময়না তদন্তের জন্য কবর থেকে উত্তোলন করা হয়েছে।
পূর্বের দাখিলকৃত ময়না তদন্তের রিপোর্ট নিয়ে প্রশ্ন ওঠায় আদালতের নির্দেশে শনিবার সকাল ৯টায় ২য় বার ওই ব্যবসায়ীর লাশ কবর থেকে উত্তোলন করা হয়।

জয়পুরহাট জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে দায়িত্বরত নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট বিএম তারিক-উজ-জ্জামান, জেলা আধুনিক হাসপাতালের চিকিৎসক ডা. সরদার রাশেদ মোবারক, মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা কালাই থানার ওসি তদন্ত সুমন কুমার রায় এর উপস্থিতিতে লাশ উত্তোলন করে রংপুর মেডিকেল কলেজের ফরেনসিক মেডিসিন বিভাগের প্রধান ডা. আব্দুল জলিলসহ ওই কলেজের এনাটমিক বিভাগের প্রফেসর ও রেডিওলজিষ্ট বিভাগের প্রফেসর মিলে ৩ সদস্যের একটি টিমের নিকট প্রেরণ করা হয়েছে।

নিহত ব্যবসায়ী সাইদুর রহমানের বাবা ও মামলার বাদী কাজেম আলী বলেন, আমার নিরপরাদ ছেলে সাইদুর রহমানকে পুলিশ মারপিট করে হত্যা করেছে। অথচ আমার ছেলের প্রথম বার ময়না তদন্ত রির্পোটে আঘাতের কথা উল্লেখ করলেও চিকিৎসক ডা. তুলশী চন্দ্র রায় মোটা অংকের টাকা নিয়ে মৃত্যুর কোন কারণ উল্লেখ না করে মনগড়া এবং দায়সাড়া রির্পোট দিয়েছে। তখন আমি তাদের দেওয়া রির্পোট প্রত্যাখান করে আইনজিবীদের মাধ্যমে আদালতে আমার ছেলের মরদেহ ২য় বার ময়না তদন্তের জন্য আবেদন করি। ন্যায় বিচারের সার্থে আদালত আমার ছেলের লাশ পূর্ণ ময়না তদন্তের নির্দেশ দিলে কবর থেকে উত্তোলন করেছে। আশা করি ২য় বার ময়না তদন্তকারী চিকিৎসকরা মৃত্যুর সঠিক কারণ খুঁজে বের করবেন। আমি সকলের সহযোগীতা কামনা করি।
জয়পুরহাট জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে দায়িত্বরত নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট বিএম তারিক-উজ-জ্জামান বলেন, সকলের উপস্থিতিতে শনিবার সকালে ব্যবসায়ীর লাশ কবর থেকে উত্তোলন করে রংপুর মেডিকেল কলেজ ফরেনসিক বিভাগে প্রেরণ করা হয়েছে।

জয়পুরহাটের সিভিল সার্জন ডা. হাবিবুল আহসান তালুকদার বলেন, আদালতের আদেশ পেয়েছি। সে অনুযায়ী ওই ব্যবসায়ীর লাশ ২য় বার কবর থেকে উত্তোলন পূর্বক পুনরায় ময়না তদন্ত করার জন্য প্রথমে বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ফরেনসিক বিভাগকে অনুরোধ করা হয়েছিল কিন্তু তারা ওই কাজে অপারগতা প্রকাশ করে। পরে রংপুর মেডিকেল কলেজে আবেদন করা হলে তার প্রেক্ষিতে রংপুর ফরেনসিক বিভাগের প্রধান ডা. আব্দুল জলিল তিন সদস্যের একটি টিম গঠন করেন। শনিবার সকালে কবর থেকে লাশ উত্তোলন করে রংপুর মেডিকেল কলেজ ফরেনসিক বিভাগে প্রেরণ করা হয়েছে।

প্রসঙ্গত : গত ৯ অক্টোবর ভোরে নারী ও শিশু নির্যাতন মামলার পলাতক আসামী মেহেদী হাসান শাপলাকে তার বাড়ি উপজেলার হারুঞ্জা গ্রামে ধরতে গিয়ে চাচা সাইদুর রহমান পুলিশের মারপিটে নিহত হয়। ওই ঘটনায় ময়না তদন্ত রির্পোটে ব্যবসায়ীর মরদেহে আঘাতের কথা উল্লেখ করলেও মৃত্যুর কোন কারণ উল্লেখ না থাকায় সেই রির্পোট প্রত্যাখান করেন পরিবার। এতে জনমনে ব্যাপক ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে। ওই ঘটনায় আদালতে চার পুলিশের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেন নিহত সাইদুর রহমানের বাবা।

news portal website developers eCommerce Website Design
Close ads[X]