আগুন পোহাতে গিয়ে দগ্ধ আরো ৩ নারীর মৃত্যু

rangpur map

রংপুর: রংপুরে প্রচণ্ড শৈত্যপ্রবাহের হাত থেকে বাঁচতে খড়কুটো জ্বালিয়ে আগুন পোহানোর সময় দগ্ধ আরো তিন নারীর মৃত্যু হয়েছে। রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রোববার রাতে তারা মারা যান। তিন নারীর হলেন- লালমনিরহাট জেলার রাজপুর গ্রামের শুকমনি (৭০), রংপুরের তারাগঞ্জ উপজেলার জামেরন বেওয়া (৮০) ও রংপুরের পীরগঞ্জ উপজেলার হাসু বেগম (৬৫)।

এ নিয়ে সম্প্রতি অগ্নিদগ্ধ হয়ে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রোগীর মধ্যে ১২ জন মারা গেলেন বলে জানিয়েছেন রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পরিচালক ডা. অজয় কুমার রায়।

এর আগে এখানে আফরোজা খাতুন, রুমা আক্তার, আঁখি আক্তার, গোলাপী বেগম, শাম্মী আক্তার, ফাতেমা বেগম, রেহেনা বেগম, মনি বেগম ও মারুফা খাতুন নামের ৯ নারী মারা যান।

রংপুর মেডিকেল কলেজের বার্ন ইউনিট সূত্রে জানা গেছে, সারাদেশের মত রংপুর অঞ্চলের হতদরিদ্ররা প্রচণ্ড শীত থেকে বাঁচতে খড়কুটো জ্বালিয়ে আগুন পোহানোর সময় সম্প্রতি অন্তত ৫৫ জন দগ্ধ হন।

এদের রমেক হাসপাতালের বার্ন ইউনিটসহ বিভিন্ন ওয়ার্ডে ভর্তি করা হয়। এর মধ্যে রোববার রাতে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ৩ জন এবং সকালে একজনের মৃত্যু হয়। অগ্নিদগ্ধ বাকিদের অবস্থাও আশঙ্কাজনক বলে জানা গেছে।

বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক সার্জারি বিভাগের প্রধান ডা. মারুফুল ইসলাম জানান, গ্রামের গরীব অসহায় মানুষ খড়কুটো জ্বালিয়ে ঠান্ডা নিবারণের চেষ্টা করছেন। এ সময় অসাবধানতাবশত তারা দগ্ধ হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হচ্ছেন।

তিনি পরামর্শ দিয়ে বলেন, যারা অগ্নিদগ্ধ হচ্ছেন, দগ্ধ অংশে প্রথমেই প্রচুর পরিমাণে পানি ঢালতে হবে। এরপর দ্রুত নিকটস্থ ডাক্তার ও হাসপাতালে নিয়ে যেতে হবে রোগীদের।

এদিকে, রংপুর আবহাওয়া অফিস সোমবার সকালে ৯ দশমিক ২ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রা রেকর্ড করেছে।

news portal website developers eCommerce Website Design
Close ads[X]