কুয়েতে বৈধ হচ্ছেন ২৫ হাজার বাংলাদেশি

kuwait

ডেস্ক রিপোর্ট: কুয়েতের অবৈধ ২৫ হাজার বাংলাদেশির বৈধ হওয়ার সুযোগ পাচ্ছেন। কারণ অবৈধ অভিবাসীদের জন্য সাধারণ ক্ষমা ঘোষণা করেছে দেশটির সরকার।

চলতি বছরের ২৯ জানুয়ারি থেকে ২২ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত দেশটিতে অবৈধভাবে বসবাসরত বিভিন্ন দেশের প্রবাসীরা সাধারণ ক্ষমার আওতায় পড়বেন।

এবারের সাধারণ ক্ষমায় বিভিন্ন দেশের এক লাখ ৩০ হাজার অবৈধ অভিবাসীর বৈধ হওয়া ও দেশত্যাগের সুযোগ পাবেন। দেশটিতে আনুমানিক ২৫ হাজারের মতো বাংলাদেশি বিভিন্ন কারণে অবৈধ হয়ে বসবাস করছেন।

কুয়েতে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত এস এম আবুল কালাম ও বাংলাদেশ দূতাবাসের কাউন্সিলর (শ্রম) আবদুল লতিফ খান এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

বিভিন্ন কারণে অবৈধ হয়ে যারা কুয়েতে বসবাস করছেন, তাদের সাধারণ ক্ষমার সুযোগ গ্রহণ করতে অনুরোধও জানিয়েছেন তারা। এ কাজে কুয়েতে নিযুক্ত বাংলাদেশ দূতাবাস সর্বাত্মক সহযোগিতা করবে বলেও জানান এ দুই কর্মকর্তা।

কুয়েত সরকারের ঘোষণা অনুযায়ী, সংশ্লিষ্ট আইনি কর্তৃপক্ষের কাছ থেকে ভ্রমণে নিষেধাজ্ঞা যাঁদের নেই, সেসব প্রবাসী কারো অনুমতি ছাড়াই কুয়েত ত্যাগ করতে পারবেন। আর যেসব অবৈধ প্রবাসী কুয়েতে বৈধভাবে অবস্থান করতে ইচ্ছুক, তারা অনুমতি প্রদানের শর্ত পূরণ করে জরিমানা আদায় করে কুয়েতে বৈধভাবে থাকতে পারবেন।

আগে যারা রেসিডেন্সি আইন লঙ্ঘনের দায়ে গ্রেফতার হয়েছিলেন বা এ সময়ের মধ্যে গ্রেফতার হবেন, তাদের অবিলম্বে নির্বাসনে পাঠানো হবে। এ সুযোগে যারা কুয়েত ত্যাগ করবেন, তাদের বিরুদ্ধে যদি কুয়েতে প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা না থাকে, তাহলে আবার বৈধভাবে কুয়েত আসতে পারবেন তারা। তবে রেসিডেন্সি আইন লঙ্ঘন করেছেন এমন প্রবাসীরা এ সময়ের মধ্যে কুয়েত না ছাড়লে তাদের বিরুদ্ধে নেয়া হবে আইন অনুযায়ী কঠোর ব্যবস্থা। ভবিষ্যতে তাদের আর কোনো সময় কুয়েতে প্রবেশের অনুমতি দেয়া হবে না।

সরকারের এই সাধারণ ক্ষমার ঘোষণার খুশি প্রবাসী বাংলাদেশিরা। অনেক দিন ধরেই এ ধরনের সুযোগের অপেক্ষায় ছিলেন বলে জানালেন তারা। ৬০০ দিনার পরিশোধ করে আকামা বা কুয়েতে কাজ করার অনুমতি পাওয়ার এই সুযোগ কাজে লাগিয়ে সেখানে বৈধভাবে বাস করার আগ্রহের কথা সাংবাদিকদের জানান প্রবাসীরা।

news portal website developers eCommerce Website Design
Close ads[X]