কালাইয়ে পরিত্যক্ত ডোবা থেকে প্রতিবন্ধীর লাশ উদ্ধার

কালাই (জয়পুরহাট) প্রতিনিধি: জয়পুরহাটের কালাইয়ে মুড়াইল গ্রামের একটি পরিত্যক্ত ডোবা থেকে ভাসমান অবস্থায় নবীর হোসেন (৩৮) নামে এক বাক ও মানসিক ভারসাম্যহীন প্রতিবন্ধীর লাশ উদ্ধার করেছে কালাই থানা পুলিশ। সে জয়পুরহাটের পাঁচবিবি উপজেলার মহিপুর কলেজ পাড়া এলাকার মৃত মানিক হোসেনের ছেলে।

গ্রামবাসী ও কালাই থানা সূত্রে জানা গেছে, মঙ্গলবার সকালে কালাই উপজেলার আহম্মেদাবাদ ইউনিয়নের মুড়াইল গ্রামে সামছুর রহমান এর বাড়ির পিছনে একটি পরিত্যক্ত ডোবায় ভাসমান অবস্থায় একটি লাশ দেখেতে পায় স্থানীয় গ্রামবাসী। পরে গ্রামবাসীরা পুলিশকে খবর দিলে কালাই থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে ওই লাশটি উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে। তবে প্রাথমিক ভাবে তার মৃত্যুর কোন কারন জানা যায়নি।

জয়পুরহাটের পাঁচবিবি উপজেলার মহিপুর কলেজ পাড়া এলাকার মৃত নবীর হোসেনের চাচাত ভাই মোশারফ হোসেন বলেন, নবীর হোসেনকে গত সোমবার থেকে নিখোঁজ ছিল। আমরা অনেক খোঁজাখুজি করেও তাকে পাইনি। আজ (মঙ্গলবার) সকালে কালাই এসে অনেক লোকজন মারফত জানতে পারলাম মুড়াইল গ্রাম থেকে একটি লাশ উদ্ধার করেছে কালাই থানা পুলিশ। সেখানে গিয়ে নবীর হোসেনের লাশ শনাক্ত করি। নবীর বাক ও মানসিক ভারসাম্যহীন প্রতিবন্ধী ছিল।

এ বিষয়ে কালাই থানা অফিসার ইনচার্জ মোঃ আব্দুল লতিফ খাঁন বলেন, উপজেলার মুড়াইল গ্রামে একটি পরিত্যক্ত ডোবা থেকে ভাসমান অবস্থায় নবীর হোসেন (৩৮) নামে এক বাক ও মানসিক ভারসাম্যহীন প্রতিবন্ধীর লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। ওই লাশটি বিষয়ে কারো কোন অভিযোগ না থাকলে পরিবারের নিকট হস্তান্তর করা হবে।