মসজিদের ভেতরে মাদরাসাছাত্রের মস্তকবিহীন মরদেহ

রংপুর : মসজিদের ভেতর থেকে রংপুরের রহমানিয়া নুরানি হাফিজিয়া মাদরাসা ও লিল্লাহ বোডিংয়ের এক শিক্ষার্থীর মস্তকবিহীন মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

বৃহস্পতিবার বিকেলে নগরীর ওই মাদরাসা সংলগ্ন ভগিবালাপাড়া কেন্দ্রীয় জামে মসজিদের দ্বিতীয় তলা থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করা হয়।

তাহমিনা আক্তার বিথী নামে এক গৃহবধূ ওই কিশোরের মরদেহ তার ছেলের দাবি করে জানান, নিহত কিশোরের নাম আবু তালহা (১৪)। তাদের বাড়ি বগুড়ার সোনাতলা উপজেলার শালমারা গ্রামে। তার স্বামী সার্জেন্ট খানজান আলী রংপুর সেনাবাহিনীতে কর্মরত। ভগিবালাপাড়ায় বাসা ভাড়া নিয়ে বসবাস করছেন তারা।

বিথী আরও জানান, তার ছেলে আবু তালহা রহমানিয়া নুরানি হাফিজিয়া মাদরাসা ও লিল্লাহ বোডিংয়ের হেফজ বিভাগের শিক্ষার্থী। বুধবার দুপুরে বাড়িতে খাবার খেয়ে মাদরাসার উদ্দেশ্যে বের হয়ে যায় সে।

বৃহস্পতিবার সকালে তালহাকে মাদরাসায় দেখতে না পেয়ে বিভিন্ন জায়গায় খোঁজাখুঁজি করার পর কোতোয়ালি থানায় সারাধণ ডায়েরি (জিডি) করা হয়। বিকেলে মসজিদে নামাজ পড়তে আসা মুসল্লিরা মস্তকবিহীন মরদেহ পড়ে থাকতে দেখে তাদেরকেসহ পুলিশে খবর দিলে তিনিসহ পরিবারের অন্যরা ঘটনাস্থলে গিয়ে মরদেহ আবু তালহার বলে চিহ্নিত করেন।

খানজান আলী বলেন, প্রতিবছর ৮ ফেব্রুয়ারি ওই মাদরাসায় ওয়াজ মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়। এবছর আবু তালহা হেফজ বিভাগের পড়া শেষ করায় ওইদিন তাকে পাগড়ি পরানোর কথা ছিল।

কোতোয়ালি থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) বাবুল মিঞা মরদেহ উদ্ধারের বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, কারা কি কারণে এ হত্যাকাণ্ড ঘটিয়েছে তা অনুসন্ধানে পুলিশ মাঠে কাজ শুরু করেছে।

news portal website developers eCommerce Website Design