সড়কে প্রাণ গেল একই পরিবারের চারজনসহ ৫ জনের

road accident2

road accident2ডেস্ক রিপোর্ট: সিলেট সুনামগঞ্জ আঞ্চলিক মহাসড়কে বাস ও প্রাইভেটকারের মুখোমুখি সংঘর্ষে একই পরিবারের চারজনসহ পাঁচজন নিহত হয়েছেন।

বুধবার দুপুরে সুনামগঞ্জের দক্ষিণসুনামগঞ্জ উপজেলার পাগলাবাজার-সংলগ্ন সদরপুর ব্রিজের পাশে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেন- সিলেটের টুকের বাজার এলাকার আবদুস শহিদ (৭০), তার স্ত্রী হাসনাফুল বেগম (৬০), তাদের মেয়ে আয়শা বেগম (২৬), আবদুস শহীদের বিয়াইন সিলেটের বিমানবন্দর থানার চাতল এলাকার বাসিন্দা আবদুন নেছা (৫৫)। নিহত অপরজন হলেন প্রাইভেটকারচালক সাব্বির (৩০)। তার বাড়ি সিলেটের জালালাবাদ থানার গোপাল এলাকায়।

স্থানীয় ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, সিলেট থেকে সুনামগঞ্জের উদ্দেশে ছেড়ে আসা একটি প্রাইভেটকার দুপুর ১২টার দিকে দক্ষিণ সুনামগঞ্জ উপজেলার সদরপুর এলাকা অতিক্রমকালে সিলেটগামী একটি যাত্রীবাহী মিনিবাসের সঙ্গে মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এতে প্রাইভটকারটি দুমড়ে-মুচড়ে যায় এবং চালকসহ চার যাত্রী ঘটনাস্থলেই মারা যান। আশঙ্কাজনক অবস্থায় পার্শ্ববর্তী হাসপাতালে নেয়ার পথে অপর একজনের মৃত্যু হয়।

দুর্ঘটনায় মিনিবাসের অন্তত ২০ জন যাত্রী আহত হয়েছেন। এদের মধ্যে গুরুতর আহতাবস্থায় তিনজনকে উন্নত চিকিৎসার জন্যে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। অপর আহতদের স্থানীয় স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ও বিভিন্ন হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে। দুর্ঘটনার পর প্রায় এক ঘণ্টা ওই সড়কে যান চলাচল বন্ধ থাকে। এ সময় দুর্ঘটনাস্থলের উভয় পার্শ্বে কয়েক কিলোমিটারজুড়ে যানজটের সৃষ্টি হয়। খবর পেয়ে দক্ষিণ সুনামগঞ্জ থানা ও জয়কলস হাইওয়ে পুলিশের দুটি দল ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

এ সড়ক দুর্ঘটনার খবর পেয়ে সুনামগঞ্জের জেলা প্রশাসক মো. সাবিরুল ইসলাম, পুলিশ সুপার মো. বরকতুল্লাহ খান, দক্ষিণ সুনামগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. হারুন অর রশীদ, উপজেলা চেয়ারম্যান আবুল কালাম, দক্ষিণ সুনামগঞ্জ থানার ওসি ইখতিয়ার উদ্দিন চৌধুরী ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন।

জয়কলস হাইওয়ে পুলিশের ইনচার্জ রনু মিয়া বলেন, নিহতদের লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য সুনামগঞ্জ সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।

news portal website developers eCommerce Website Design
Close ads[X]