বাউফলে চিফ হুইপকে হত্যার চেষ্টা, রাম দা সহ যুবক আটক

atok

atokপটুয়াখালী: জাতীয় সংসদের চিফ হুইপ ও পটুয়াখালী-২ আসনের সংসদ সদস্য আ স ম ফিরোজকে হত্যার চেষ্টা হয়েছে।

বুধবার বিকেল বেলা সাড়ে তিনটার দিকে বাউফল উপজেলা পরিষদ অডিটরিয়ামে এ ঘটনার সময় রাম দা সহ এক যুবককে হাতেনাতে ধরেছেন চিফ হুইপের নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকা পুলিশ সদস্যরা।

আটক মো. রনি (৩০) বাউফল পৌরসভার ৮নম্বর ওয়ার্ডের মো. জাহাঙ্গির হোসেনের ছেলে।

জানা গেছে, বিকেলে বাউফল উপজেলা পরিষদের অডিটরিয়ামে বাউফল উপজেলা শিক্ষা কমিটির সভা চলাকালীন ওই যুবক (রনি) সভাকক্ষে চিফ হুইপের সাথে কথা বলার জন্য কয়েকবার ঢোকার চেষ্টা করে ব্যর্থ হয়।

শিক্ষা কমিটির প্রধান উপদেষ্টা হিসেবে সভায় তখন উপস্থিত ছিলেন আ স ম ফিরোজ। এক পর্যায়ে পুলিশকে ধাক্কা দিয়ে ভেতরে ঢুকে চিফ হুইপের কাছাকাছি যাবার চেষ্টা করলে চিফ হুইপের নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকা পুলিশ সদস্যরা তাকে আটক করেন। এসময় আটক ওই যুবকের কাছ থেকে একটি ধারালো রাম দা, গাঁজা, একটি অ্যান্ড্রোয়েড মোবাইল ফোন এবং দুই হাজার টাকা জব্দ করা হয়।

বাউফল উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আবদুল মোতালেব হাওলাদার বলেন, ৭ই মার্চ উপলক্ষে র‌্যালি এবং বিভিন্ন প্রোগ্রামের কারণে চিফ হুইপ সারাদিনই নেতাকর্মী দ্বারা পরিবেষ্টিত ছিলেন। দুপুরের পর যখন নেতাকর্মীরা বাড়ি ফিরে যান ঠিক তখনই এই ঘটনা। এটা অত্যন্ত গভীর একটি ষড়যন্ত্রের অংশ।

এ ঘটনায় চিফ হুইপ আসম ফিরোজ উদ্বেগ প্রকাশ করে বলেন, আমাকে পরিকল্পিতভাবে হত্যার জন্যই ওই যুবককে এখানে পাঠানো হয়েছে।

শিক্ষা কমিটির ওই সভায় অন্যান্যের মধ্যে আরো উপস্থিত ছিলেন বাউফল উপজেলা নির্বাহি কর্মকর্তা মোহাম্মাদ আবদুল্লাহ আল মাহমুদ জামান, বাউফল উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা মো. রিয়াজুল হক সহ শিক্ষা কমিটির অপর সদস্যরা।

এ বিষয়ে বাউফল থানার ওসি মো. মনিরুল ইসলাম বলেন, ওই দুর্বৃত্তকে আটক করা হয়েছে। এ ঘটনায় সম্ভাব্য সকল বিষয় গুরুত্ত্ব সহকারে খতিয়ে দেখা হচ্ছে।সূত্র:সমকাল

news portal website developers eCommerce Website Design