শিশুর ৪টি আঙ্গুল কেটে দিলো যুবলীগ নেতা

child news

সুনামগঞ্জ: তাহিরপুরে ফসল রক্ষা বাঁধের উপর ওঠার অপরাধে এক শিশুর ডান হাতের ৪টি আঙ্গুল কাঁচি দিয়ে কেটে দিয়েছে প্রকল্পের পিআইসি শ্রীপুর দক্ষিণ ইউনিয়নের সাবেক যুবলীগ আহ্বায়ক অদুদ মিয়া। আহত শিশুকে তাহিরপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়ার পর তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য সুনামগঞ্জ জেলা সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। আহত শিশুর নাম ইয়াহিন (৭)। সে তাহিরপুর উপজেলার শ্রীপুর দক্ষিণ ইউনিয়নের সুলেমানপুর গ্রামের শাহানুর মিয়ার ছেলে এবং সুলেমানপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রথম শ্রেণির ছাত্র।

child news

শিশুর পিতা শাহানুর মিয়া ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, শনিবার বিকেলে ইয়াহিন গরুর ঘাস কাটার জন্য মহালিয়া হাওর পাড়ে ময়নাখালি বাঁধের ওপর দিয়ে হেঁটে যাওয়ার সময় পা পিছলে বাঁধের নিচে পড়ে যায়। এ সময় নির্মাণাধীন বাঁধের ড্রেসিং করা কাজের সামান্য ক্ষতি হয়।

বাঁধের ক্ষতি হওয়ায়, ময়নাখালি বাঁধের ২৮নং পিআইসি সুলেমানপুর গ্রামের জমির উদ্দিনের ছেলে অদুদ মিয়া ইয়াহিনের হাতে থাকা কাঁচি কেড়ে নিয়ে শিশুর হাতের ৪টি আঙ্গুল কেটে দেয়। পরে রক্তাক্ত অবস্থায় সন্ধ্যায় চিকিৎসার জন্য তাহিরপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে এলে তার আঘাত গুরুতর হওয়ায় উন্নত চিকিৎসার জন্য সুনামগঞ্জ জেলা সদর হাসপাতালে রেফার করা হয়।

এ বিষয়ে মহালিয়া হাওরের পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্মাণাধীন ময়নাখালি ফসল রক্ষা বাঁধের ২৮নং পিআইসি অদুদ মিয়া জানান, তিনি শিশু ইয়াহিনকে আঘাত করেননি। শিশুটির হাতের আঙ্গুল কে কাটলো তার কোনো সদুত্তর দিতে পারেননি।

তাহিরপুর থানার ওসি নন্দন কান্তি ধর জানান, শিশুর আঙ্গুল কাটার সংবাদ পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে এবং অভিযুক্তকে গ্রেপ্তার করতে পুলিশ চেষ্টা করছে।

news portal website developers eCommerce Website Design
Close ads[X]