মির্জা ফখরুল দিন-রাত মিথ্যা বলেন : প্রধানমন্ত্রী

hasina pmঠাকুরগাঁও: আসন্ন একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে নৌকা প্রতীকে ভোট চেয়ে আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, ‘আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় থাকলেই উন্নয়ন হয়, আগামী নির্বাচনেও নৌকা মার্কায় ভোট দিন, আমার সোনার বাংলা উপহার দেব।

বৃহস্পতিবার বিকেলে ঠাকুরগাঁও জেলা সরকারি বালক উচ্চ বিদ্যালয়ের বড় মাঠে স্থানীয় আওয়ামী লীগের আয়োজিত জনসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলামের তীব্র সমালোচনা করে আওয়ামী লীগ সভানেত্রী বলেন, ‘বিএনপির মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর সারাদিন কথা বলেন। দিন-রাত মিথ্যা কথা বলতে বলতে তার গলা ব্যথা হয়ে যায়। কিন্তু মিথ্যা বলারও একটা সীমা আছে। এত মিথ্যা বললে আল্লাহও নারাজ হয়।’

তিনি বলেন, ‘সে (মির্জা ফখরুল) তো বিমানমন্ত্রী ছিল। কিন্তু বিমানের কী উন্নয়ন করেছিল, বলেন। আমরা ক্ষমতায় এসে দেখলাম বিমান চলে না। সব টাকা-পয়সা লুটপাট করে নেয়া হয়েছে, বিমানকে ধ্বংস করে রেখে গেছে।’

বিএনপি ক্ষমতায় থাকাকালে মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বিমান মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী থাকলেও এই এলাকার সৈয়দপুর বিমানবন্দর বন্ধ হয়ে গিয়েছিল বলে মন্তব্য করেন প্রধানমন্ত্রী। তিনি বলেন, ‘তিনি (মির্জা ফখরুল) ছিলেন বিমান প্রতিমন্ত্রী। কিন্তু এখান থেকে মাত্র কয়েক মাইল দূরে সৈয়দপুর বিমানবন্দর। সেই বিমানবন্দর বন্ধ করে দিয়েছিলেন। এখানকার বিমানমন্ত্রী, অথচ এখানকার এয়ারপোর্টই বন্ধ করে দেন। আমরা আজ এই বিমানবন্দর চালু করে দিয়েছি। এখান থেকে এখন সব মানুষ যাতায়াত করতে পারছে। তারা রাজশাহী বিমানবন্দর বন্ধ করে দিয়েছিল, আমরা চালু করেছি। তারা বরিশাল বিমানবন্দর বন্ধ করেছিল, আমরা চালু করেছি।’

আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় আসার পর বিমানের উন্নয়নের প্রসঙ্গ টেনে শেখ হাসিনা বলেন, ‘আমরা ক্ষমতায় আসার পর আন্তর্জাতিক মানের আটটি বিমান কিনেছি। আরও দুইটি বিমান আসবে। আজ আমরা অন্তত বিমানকে উন্নত করেছি। বিএনপি ধ্বংস করতে জানে, সৃষ্টি করতে জানে না। তারা মানুষের কাছ থেকে নিতে জানে, দিতে জানে না।’

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘বিএনপি ক্ষমতায় থাকতে পাঁচ পাঁচ বার বাংলাদেশ দুর্নীতিতে চ্যাম্পিয়ন হয়েছিল। কেন হয়েছিল? তারা তো পুরো দেশটাকেই ধ্বংস করে দিয়েছে। খালেদা জিয়া ও তার ছেলেরা অর্থসম্পদ লুটপাট করে পাচার করেছে। আমেরিকার গোয়েন্দা সংস্থা সেই তথ্য বের করেছে, সিঙ্গাপুরে সেটা ধরা পড়েছে। আমরা সেই টাকা ফেরত পর্যন্ত এনেছি। সেই টাকা এখন জনগণের কাজে লাগাচ্ছি। আর ওরা (বিএনপি) জানে লুটপাট, দুর্নীতি, খুন।’

প্রধানমন্ত্রী আরো বলেন, যতদূরেই থাকি আমি সব সময় আপনাদের সঙ্গেই ছিলাম এবং সঙ্গেই আছি। আপনাদের উন্নয়নে কাজ করে যাচ্ছি। আপনাদের ছেলে-মেয়েদের লেখাপড়ার উন্নয়নে স্কুল-কলেজ প্রতিষ্ঠা করেছি। আরও উন্নয়ন প্রকল্প নিয়ে আজ আমি এখানে এসেছি।

শেখ হাসিনা বলেন, আমাদের সরকার ক্ষমতায় এলেই দেশের উন্নয়ন হয়। আমরা উন্নয়ন করি আর বিএনপি লুটপাট করে। আমরা বিমানবন্দর চালু করি তারা বন্ধ করে। এভাবে একের পর এক উন্নয়ন কর্মকাণ্ড বাধাগ্রস্ত করে দেশের উন্নয়ন ধ্বংস করছে বিএনপি। জনসভাস্থল থেকে ৬৬টি উন্নয়ন প্রকল্প উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী। তিনি ৩৩টি উন্নয়ন প্রকল্পের ফলক উন্মোচন ও ৩৩টি উন্নয়ন কাজেরও ভিত্তিপ্রস্তর উদ্বোধন করবেন।

news portal website developers eCommerce Website Design