নির্মূল না হলেও জঙ্গিবাদ আর মাথাচাড়া দিতে পারবে না: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

asadur jaman khan kamalসাতক্ষীরা: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল বলেন, আমরা কখনো বলিনি যে, দেশ থেকে জঙ্গি পুরোপুরি নির্মূল হয়ে গেছে। তবে বাংলাদেশে আর কখনো জঙ্গিবাদ মাথাচাড়া দিতে পারবে না।

শনিবার সাতক্ষীরার দেবহাটায় নতুন থানা ভবন উদ্বোধন শেষে সাংবাদিকদের বিভিন্ন প্রশ্নের জবাবে তিনি এসব কথা বলেন।

এ দেশের মানুষ জঙ্গিবাদ ও সন্ত্রাস পছন্দ করে না মন্তব্য করে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ষড়যন্ত্রকারীরা বসে নেই। তবে আমাদের নিরাপত্তা বাহিনী জঙ্গি দমনে যথেষ্ট সজাগ। বর্তমানে যে অভিযান চলছে তাতে তাদের মাথাচাড়া দেয়ার সুযোগ নেই।

রোহিঙ্গা সমস্যা ১৯৭৮ সাল থেকে চলে আসছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনে কফি আনান কমিশন এবং বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রীর পাঁচ দফা বাস্তবায়ন করতে হবে। তা করলেই রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন সম্ভব হবে। তিনি বলেন, রোহিঙ্গা সংকট নিয়ে মিয়ানমারের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে আমাদের বৈঠক হয়েছে।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আরও বলেন, বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া আদালতের নির্দেশে কারাগারে আছেন এবং তিনি সুস্থ আছেন। সেখানে তার স্বাস্থ্য পরীক্ষা করা হচ্ছে। তবে তিনি কিছু ক্রনিক রোগে ভুগছেন। জেল কোড অনুযায়ী প্রাপ্য সব সুযোগ তিনি লাভ করছেন।

কোনোভাবেই মাদককে ছাড় দেয়া নয় উল্লেখ করে তিনি বলেন, মাদকের বিরুদ্ধে সরকারের সর্বাত্মক অভিযান অব্যাহত আছে। যারা মাদক কারবারের সঙ্গে জড়িত তাদের ছবি দিয়ে সংবাদপত্রে নাম-পরিচয় প্রকাশ করা হবে।

আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল আরও বলেন, সুন্দরবনে জলদস্যু দমনে কঠোর অভিযানের পাশাপাশি তাদের আত্মসমর্পণ প্রক্রিয়া চলছে। রোববার আরও অনেক জলদস্যু বাগেরহাটে অস্ত্রসহ তার কাছে আত্মসমর্পণ করবে বলে মন্তব্য করেন তিনি।

থানা ভবন উদ্বোধন শেষে মন্ত্রী দেবহাটা হাইস্কুল ময়দানে আওয়ামী লীগ আয়োজিত সুধী সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তৃতা করেন। এরপর তিনি দেবীশহর ফুটবল ময়দানে এক জনসভায় ভাষণ দেন।

এসব অনুষ্ঠানে মন্ত্রীর সঙ্গে বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মন্ত্রণালয়বিষয়ক সংসদীয় কমিটির চেয়ারম্যান সাবেক স্বাস্থ্যমন্ত্রী ডা. আ ফ ম রুহুল হক এমপি, সাতক্ষীরা ১ , ২ ও ৪ আসনের সংসদ সদস্য অ্যাডভোকেট মুস্তফা লুৎফুল্লাহ, মীর মোস্তাক আহমেদ রবি, এসএম জগলুল হায়দার, সংরক্ষিত মহিলা আসনের সংসদ সদস্য মিসেস রিফাত আমিন, জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মুনসুর আহমেদ, জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মো. নজরুল ইসলাম, জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ ইফতেখার হোসেন, পুলিশ সুপার মো. সাজ্জাদুর রহমান প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।