LY1Y2K

করদাতাকে হয়রানি করলে কঠোর শাস্তি: এনবিআর চেয়ারম্যান

nbr-mosarrof hosen voyaডেস্ক রিপোর্ট: কোনও করদাতাকে হয়রানি না করতে কর্মকর্তাদের প্রতি নির্দেশ দিয়েছেন জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের (এনবিআর) চেয়ারম্যান মো. মোশাররফ হোসেন ভূঁইয়া। তিনি বলেন, ‘করদাতাদের বলবো, আপনারা সাহসের সঙ্গে কর দিন। অনায্যভাবে এনবিআরের কোনও কর্মকর্তা-কর্মচারী যদি করদাতাদের হয়রানি করে, তাহলে তাদের কঠোর শাস্তি হবে।’

রবিবার রাজধানীর সেগুনবাগিচার কর অঞ্চল-৮-এর সম্মেলন কক্ষে আয়োজিত রাজস্ব হালখাতা ও বৈশাখ উৎসব-এর উদ্বোধনকালে তিনি এসব কথা বলেন।

এনবিআর চেয়ারম্যান বলেন, ‘যারা বেশি বেশি আয়কর, মূসক দেয় তাদের অত্যাচার না করে রাজস্ব আহরণের নতুন নতুন ক্ষেত্র খুঁজে বের করতে হবে।’ আগামী বাজেট ব্যবসাবান্ধব ও সুষম বাজেট হবে বলেও আশ্বাস দেন তিনি।

মোশাররফ হোসেন ভূঁইয়া বলেন, ‘রাজস্ব হালখাতা এনবিআর ও করদাতাদের মধ্যে একটি সেতুবন্ধন তৈরি করছে। এ হালখাতার মাধ্যমে আমরা প্রকৃত করদাতাদের সম্মান করবো, যারা স্বেচ্ছায় কর দিচ্ছেন।’ তিনি উল্লেখ করেন, ‘ঠিকমতো আয়কর দিলে ব্যবসার ক্ষতি হয় না, বরং ব্যবসা বাড়ে। সিআইপিরা যেসব সুবিধা পায় কর বাহাদুর সম্মাননা ও ট্যাক্স কার্ডে সেসব সুবিধা নিশ্চিত করতে এনবিআর সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ের সঙ্গে আলোচনা করছে।’ আগামীতে এসব সুবিধা নিশ্চিত করে ট্যাক্স কার্ড দেওয়া হবে বলেও তিনি জানান।

এনবিআর চেয়ারম্যান আরও বলেন, ‘করের বিষয়টি মানুষের কাছে গ্রহণযোগ্যতা পেলেও ভ্যাট নিয়ে এখনও মানুষের মধ্যে সচেতনতা তৈরি হয়নি। ব্যবসায়ীরা মানুষ থেকে ভ্যাট আদায় করলেও সঠিকভাবে সরকারি কোষাগারে জমা দেন না। সঠিকভাবে ভ্যাট রাজস্ব কোষাগারে জমা দেওয়া নৈতিক ও ধর্মীয় দায়িত্ব। সঠিকভাবে কর দিলে আল্লাহর কাছে মাফ পাবেন। ব্যবসারও উন্নতি হবে। এতে আমাদের ১৫ শতাংশ কর আহরণের যে টার্গেট রয়েছে, সেটিও পূরণ হবে। বর্তমানে কর আহরণ হচ্ছে ৯-১০ শতাংশ হারে।’