পুলিশ যেন জ্যোতিষী

mirza fokrul islamডেস্ক রিপোর্ট: ঝামেলা হতে পারে এই আশঙ্কা থেকে বিএনপিকে সভা সমাবেশের অনুমতি দিতে পুলিশ গড়িমসি করছে বলে অভিযোগ করেছেন মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের প্রশ্ন, গ্যাঞ্জাম হতে পারে, এটা পুলিশ কীভাবে আগে থেকে জানবে? বৃহস্পতিবার দুপুরে জাতীয় প্রেসক্লাবে খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে অ্যাসোসিয়েশন অব ইঞ্জিনিয়ার্স (অ্যাব) আয়োজিত প্রতিবাদ সভায়এই অভিযোগ করেন মির্জা ফখরুল।

গত ৮ ফেব্রুয়ারি বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার কারাদণ্ড হওয়ার পর রাজধানীর সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে সমাবেশের অনুমতি চেয়ে চারবার প্রত্যাখ্যাত হয়েছে বিএনপি। ঢাকা ছাড়াও দেশের বিভিন্ন এলাকায় নিরাপত্তা বিঘ্নিত হওয়ার আশঙ্কায় পুলিশ অনুমতি দিতে চাইছে না বলেও অভিযোগ করেন ফখরুল। আর পুলিশের এই পূর্বানুমান করা নিয়েই আপত্তি করে বিএনপির এই নেতা বলেন বলেন, গতকাল দিনাজপুরে পুলিশ সভা করতে দেয়নি। সকাল বেলা পুলিশ বলছে, সভা করতে দেয়া হবে না কারণ এখানে গ্যাঞ্জাম হবে। সব জ্যোতিষী।

এর আগে ঠাকুরগাঁওয়েও বাধা দিয়েছিল। কিন্তু আমার ওখানকার নেতাকর্মীরা বলছে, ঢুকলাম পারলে গুলি করেন। খুলনা, বরিশালেও এমন করেছে। তবে নেতা-কর্মীরা একাট্টা থাকলে পুলিশ আর কিছু করে না বলেও জানান ফখরুল। বলেন, নেতাকর্মীদের শক্ত অবস্থানের কারণে তারা সরে গেছে। যেখানেই প্রতিরোধ হচ্ছে সেখানেই পুলিশ সরে যায়।

এ সময় সুষ্ঠু ভোট হবে না জেনে ২০১৪ সালের ৫ জানুয়ারির নির্বাচনের সময় যেমন সব বিরোধী দল একমত হয়ে নির্বাচন বর্জন করেছিল, ঠিক একইরকমভাবে আগামীতে একটি নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে জাতীয় সংসদ নির্বাচনের জন্য সবাইকে ঐক্যবদ্ধ হওয়ার আহ্বান জানিয়েছে মির্জা ফখরুল ।

সভায় আরো বক্তব্য দেন পেশাজীবী সমন্বয় পরিষদের সভাপতি ও আমার দেশ পত্রিকার ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক মাহমুদুর রহমান, ডক্টরস অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (ড্যাব) মহাসচিব ডা. এ জেড এম জাহিদ হোসেন প্রমুখ।