গাইবান্ধা

মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারের দাবিতে এলাকাবাসির বিক্ষোভ

By shaon

April 29, 2018

গাইবান্ধা প্রতিনিধি: গাইবান্ধা পৌরসভার ৯নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর ও ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি মো. ইউনুস আলী শাহীনের বিরুদ্ধে দায়েরকৃত মিথ্যা ও হয়রানীমূলক মামলা প্রত্যাহারের দাবিতে রোববার বিক্ষুব্ধ এলাকাবাসি বিক্ষোভ মিছিল ও প্রতিবাদ সমাবেশ করে। ৯নং ওয়ার্ডের সচেতন নাগরিক ও জনগোষ্ঠীর স্বতঃস্ফুর্ত উদ্যোগে এই বিক্ষোভ মিছিল ও প্রতিবাদ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।

বিক্ষোভ মিছিলটি জেলা শহরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে গাইবান্ধা পৌরসভা কার্যালয়ের সম্মুখে এবং প্রেস ক্লাব চত্বর কাচারী বাজারে এসে এক প্রতিবাদ সমাবেশ করে। সমাবেশে বক্তব্য রাখেন ৯নং ওয়ার্ড যুবলীগ সভাপতি মোস্তফা বাবু, কোষাধ্যক্ষ আশরাফুল আলম, আবু এমরান, বিশিষ্ট সমাজসেবক আব্দুল ওয়াহেদ, শামছুল আলম, মাকছুদা বেগম, লাভলী বেগম প্রমুখ।

বক্তারা বলেন, এলাকার উন্নয়নকে বাধাগ্রস্ত ও কাউন্সিলরের সুনাম ক্ষুন্ন করতে একটি মহল ঈর্ষান্বিত হয়ে তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে নিরীহ দিনমজুর, দুইজন পৌর কর্মচারিসহ নামে বেনামে নানা ষড়যন্ত্রমূলক মিথ্যা মামলা দিয়ে হয়রানী ও সুনাম ক্ষুন্ন করার অপতৎপরতা চালাচ্ছে। বক্তব্যে উলে¬খ করা হয়, সুষ্ঠু তদন্তের মাধ্যমে এই মামলা অবশ্যই মিথ্যা হিসেবে প্রমাণিত হবে। সেজন্য এলাকাবাসির পক্ষ থেকে বক্তারা গাইবান্ধা পৌরসভার ৯নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ সভাপতি ও পৌর কাউন্সিলর মো. ইউনুস আলী শাহীনের বিরুদ্ধে দায়েরকৃত ২টি মিথ্যা মামলা অবিলম্বে প্রত্যাহারের দাবি জানান। এছাড়া একই দাবিতে সোমবার গাইবান্ধা জেলা প্রশাসক ও পুলিশ সুপার বরাবরে স্মারকলিপি প্রদানের কর্মসূচীও ঘোষণা করা হয়।

প্রসঙ্গত উলে¬খ্য যে, গত ১৯ এপ্রিল ৬নং কমিউনিটি পুলিশের বিট অফিসের পিয়ন রাজু মিয়ার তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে ফিরোজ ও তার লোকজন তাকে মারপিটে আহত করে। এব্যাপারে উভয়পক্ষের মধ্যে সমঝোতা করার উদ্যোগ গ্রহণ করা হলে মনু ড্রাইভার কাউন্সিলর শাহীনের পৌর নির্বাচনে পরাজিত প্রতিপক্ষের দ্বারা প্রভাহিত হয়ে কাউন্সিলর শাহীনসহ তার তিন ভাইকে জড়িয়ে সদর থানায় হয়রানীমূলক মিথ্যা মামলা দায়ের করেন। কিন্তু একজন পৌরসভার কাউন্সিলর এবং কমিউনিটি পুলিশিংয়ের ওয়ার্ড সভাপতি এবং বিট পুলিশিংয়ের সভাপতির দায়িত্ব পালন করা সত্ত্বেও এব্যাপারে সদর থানা পুলিশ বিষয়টি সুষ্ঠু তদন্ত না করেই মামলাটি রেকর্ড করে। ফলে এক লিখিত পদত্যাগপত্রে উলে¬খিত অভিযোগ জানিয়ে পৌর কাউন্সিলর শাহীন কমিউনিটি পুলিশিংয়ের ওয়ার্ড সভাপতি ও বিট পুলিশিংয়ের সভাপতির দায়িত্ব থেকে ইতোপূর্বে পদত্যাগ করেন।