পাহাড়ে রক্তপাতে বিএনপি-জামায়াত : কাদের

চট্টগ্রাম: রাঙ্গামাটির নানিয়ারচর উপজেলা চেয়ারম্যান শক্তিমান চাকমা ও ইউপিডিএফ গণতান্ত্রিকের পাঁচ নেতাকর্মী নিহতের মাধ্যমে পাহাড়কে অশান্তির যে চেষ্টা চলছে সেখানে বিএনপি-জামায়াতের হাত আছে বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

শনিবার দুপুরে চট্টগ্রামের এস এস খালেদ সড়কের লেডিস ক্লাবে মহানগর আওয়ামী লীগ আয়োজিত ‘তৃণমূলের বর্ধিত সভায়’ প্রধান অতিথির বক্তব্যে এমন মন্তব্য করেন তিনি।

ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ যখন এগিয়ে চলছে। সেখানে হঠাৎ করেই পাহাড়ে লাশের রাজনীতি শুরু হয়েছে। পাহাড়ে এই রক্তপাতের পেছনে বিএনপি-জামায়াত ঢুকে পড়ার ইঙ্গিত আমরা পেয়েছি। তারা কোটা সংস্কারে ঢুকেও ব্যর্থ হয়েছিল। সেজন্য আমাদের সকলকে ঐক্যবদ্ধ হতে হবে।’

শেখ হাসিনা সরকারের উন্নয়নের ধারাবাহিকতা রক্ষা, সন্ত্রাস, জঙ্গিবাদ ও স্বাধীনতাবিরোধী অপশক্তি রুখতে আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে নৌকার বিজয় নিশ্চিতকরণ, সংগঠনকে তৃণমূল পর্যায়ে শক্তিশালী ও গতিশীল করার লক্ষ্যে এ সভার আয়োজন করা হয়েছে।

মহানগর আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মাহতাব উদ্দিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে সভায় উদ্বোধনী বক্তব্য দেন প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রী নুরুল ইসলাম বিএসসি, মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দিন।

এতে উপস্থিত আছেন আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ব্যারিস্টার মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল, উপ-দফতর সম্পাদক ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়া, নগর আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি ও সাবেক মন্ত্রী ডা. আফসারুল আমিন, খোরশেদ আলম সুজন প্রমুখ।

প্রসঙ্গত, বৃহস্পতিবার নিজ কার্যালয়ের সামনে গুলিতে নিহত হন রাঙ্গামাটির নানিয়ারচর উপজেলা চেয়ারম্যান শক্তিমান চাকমা। এর পরদিন শুক্রবার তার অন্ত্যেষ্টিক্রিয়ায় যাওয়ার পথে মাইক্রোবাস লক্ষ্য করে সন্ত্রাসীদের গুলিবিদ্ধ ইউপিডিএফ-গণতান্ত্রিক এর পাঁচজনকে গুলি করে হত্যা করা হয়। এ ঘটনায় আহত হন আরও সাতজন। এই হত্যাকাণ্ডের জন্য ইউপিডিএফ এর শীর্ষ নেতাদের দায়ী করেছে পার্বত্য চট্টগ্রাম জনসংহতি সমিতি।

news portal website developers eCommerce Website Design