পারিবারিক কলহে প্রাণ গেল গৃহবধূর, স্বামী-দেবর আটক

জামালপুর: জামালপুরের বকশীগঞ্জে জরিনা বেগম নামে এক গৃহবধূর গলাকাটা লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। এ সময় স্বামী লুৎফর রহমান ও দেবর আক্তারকে আটক করা হয়েছে।
সোমবার সকালে পৌর শহরের মালিরচর বেপারিপাড়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।
স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, পৌর শহরের মালিরচর বেপারিপাড়া এলাকার মৃত শাহ আলমের ছেলে লুৎফর রহমানের (৪০) সঙ্গে দিনাজপুর জেলার মইনুলের মেয়ে জরিনা বেগমের (৩০) বিয়ে হয়। তাদের দুটি সন্তান রয়েছে।

বিয়ের পর থেকে বিভিন্ন কারণে পারিবারিক কলহ বিবাদ লেগেই ছিল।সোমবার ভোর সকালে এলাকাবাসী লুৎফরের স্ত্রী জরিনা বেগমের গলাকাটা লাশ দেখতে পেয়ে পুলিশে খবর দেন।

পরে গলাকাটা লাশ উদ্ধার করে পুলিশ।এ সময় পুলিশ হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগে স্বামী লুৎফর ও দেবর আক্তার হোসেনকে আটক করে থানায় নিয়ে আসেন।

বকশীগঞ্জ থানার ওসি আসলাম হোসেন জানান, ঘটনায় জড়িত থাকার সন্দেহে লুৎফর ও তার ভাই আক্তারকে আটক করা হয়েছে। লাশ উদ্ধার করে হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।