গাইবান্ধায় গুপ্তধন দেয়ার কথা বলে মা-মেয়েকে ধর্ষণ, আটক ১

gaibandha map

গাইবান্ধা প্রতিনিধি: গুপ্তধন দেয়ার প্রলোভনে ডেকে এনে মা-মেয়েকে ধর্ষনের অভিযোগ উঠেছে জিনের বাদশা’ নামে একটি প্রতারক চক্রের বিরুদ্ধে। এ ঘটনায় সাদা মিয়া (২৫) নামে এক জ্বিনের বাদশা চক্রের সদস্যকে আটক করেছে পুলিশ। এব্যাপারে রোববার (১৩ মে) থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। এ ঘটনায় ধর্ষিত মা ও মেয়েকে ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য গাইবান্ধা সদর আধুনিক হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে বলে জানাগেছে।

পুলিশ জানায়, গুপ্তধন দেয়ার প্রলোভন দেখিয়ে জামালপুর জেলা থেকে মা ও মেয়েকে ডেকে আনে প্রতারক চক্র। পরে প্রতারণার ফাঁদে ফেলে গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জের কাটাখালী নদীর পাড়ে শুক্রবার রাতে তাদের ধর্ষণ করা হয়।

নির্যাতনের শিকার মা-মেয়ের বাড়ি জামালপুর সদরে। দীর্ঘদিন ধরে গোবিন্দগঞ্জের এই প্রতারক চক্র সাধারণ মানুষের মোবাইল ফোনে গভীর রাতে ফোন দিয়ে ধর্মীয় কথাবার্তা বলে তাদের দূর্বল করে এবং গুপ্তধন পাইয়ে দেয়ার প্রলোভন দিয়ে মানুষের সাথে প্রতারণা করে আসছে। একই কৌশলে প্রতারক চক্রের সদস্যরা তাদের মোবাইল নম্বর সংগ্রহ করে জিনের বাদশা পরিচয় দিয়ে কৌশলে তাদের কাছ থেকে ১ লাখ ২০ হাজার টাকা হাতিয়ে নেয়।

এরপর গুপ্তধন দেয়ার কথা বলে তাদের গোবিন্দগঞ্জে ডেকে আনে। জামালপুর থেকে শুক্রবার মধ্যরাতে গোবিন্দগঞ্জে পৌছে তারা। এরপর গুপ্তধনের স্থানে নেয়ার কথা বলে গোবিন্দগঞ্জ থেকে তাদের মোটর সাইকেলযোগে কাটাখালী নদীর বালুচরে নিয়ে যাওয়া হয়। প্রতারকরা সেখানে মা-মেয়েকে রাতভর ধর্ষণেরর পর তাদের ফেলে রেখে পালিয়ে যায়।

এ ঘটনার পর শনিবার সকালে মা-মেয়ে গোবিন্দগঞ্জ থানায় আশ্রয় নেন। গোবিন্দগঞ্জ থানার ওসি মজিবুর রহমান জানান, অভিযুক্তদের খুজে বের করতে পুলিশ তৎপরতা চালাচ্ছে। তাদের পাওয়া গেলে আটক করে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

news portal website developers eCommerce Website Design
Close ads[X]