ধামরাইয়ে পুকুর থেকে তুলে নিয়ে স্কুলছাত্রীকে গণধর্ষণ

সাভার: ধামরাইয়ে বাড়ির পাশে পুকুরে গোসল করার সময় দশম শ্রেণীর এক স্কুলছাত্রীকে উঠিয়ে নিয়ে গণধর্ষণ করেছে বখাটেরা। এ ঘটনায় বুধবার সকালে জাহাঙ্গীর আলম (৩২) নামের এক যুবককে আটক করেছে পুলিশ। এর আগে মঙ্গলবার বিকেলে ধামরাইয়ে বাউখন্ড গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

ধর্ষিতার পারিবারিক সূত্র ও পুলিশ জানায়, মঙ্গলবার বিকেলে স্কুল থেকে ফেরার পর ওই শিক্ষার্থী বাড়ির পাশের একটি পুকুরে গোসল করার উদ্দেশে বের হয়। এসময় পুকুরে গিয়ে গোসল করার এক পর্যায়ে জাহাঙ্গীর ও তার আরো ৪ সহযোগী মিলে স্কুলছাত্রীকে পুকুর থেকে তুলে নিয়ে একটি নির্জন স্থানে নিয়ে যায়। পরে পালাক্রমে তার উপর চালানো হয় পাশবিক নির্যাতন। এক পর্যায়ে স্কুলছাত্রী অচেতন হয়ে পড়লে বখাটেরা তাকে সেখানে রেখেই চলে যায়। সন্ধ্যার দিকে প্রতিবেশী এক নারী ওই পথ দিয়ে যাওয়ার পথে অচেতন অবস্থায় এক শিক্ষার্থীকে পড়ে থাকতে দেখে থানায় খবর দেয়। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌছে ওই স্কুল ছাত্রীকে উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ অ্যান্ড হাসপাতালের ওয়ান ষ্টপ ক্রাইসিস সেন্টারে পাঠায়।

এ ব্যাপারে ধামরাই থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রেজাউল হক বাংলাদেশ প্রতিদিনকে বলেন, ইন্টারনেটে ছাড়ার হুমকি দেওয়া হয় এবং স্কুল ছাত্রীকে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এছাড়াও এ ঘটনায় একটি মামলা দায়েরের পর এক যুবককে আটক করা হয়েছে।