স্ত্রীকে ভারতে নিয়ে পতিতালয়ে বিক্রির দায়ে স্বামীর যাবজ্জীবন

সাতক্ষীরা: সাতক্ষীরায় স্ত্রীকে ভারতে পাচার করে পতিতালয়ে বিক্রির দায়ে হাবিবুর রহমান গাজী (৩৫) নামে এক ব্যক্তিকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। একই সঙ্গে ৫০ হাজার টাকা জরিমানাও করা হয় তাকে, অনাদায়ে আরও ছয় মাসের কারাদণ্ড দেওয়া হয়। আজ বৃহস্পতিবার দুপুরে সাতক্ষীরা নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক হোসনে আরা আক্তার এ রায় দেন।

সাজাপ্রাপ্ত হাবিবুর রহমান গাজী সাতক্ষীরা সদর উপজেলার ব্যাংদহা গ্রামের মৃত কেয়ামউদ্দিন গাজীর ছেলে।মামলার বিবরণে জানা যায়, ২০০৫ সালের জুনে ব্যাংদহা গ্রামের হাবিবুর রহমান তার স্ত্রীকে নিয়ে একই গ্রামে শ্বশুর বাড়ি বেড়াতে যান। সেখানে তিনদিন থাকার পর ৮ জুন তিনি জুসের সঙ্গে নেশাজাতীয় ট্যাবলেট মিশিয়ে স্ত্রীকে পান করিয়ে অজ্ঞান করেন। তারপর তাকে সীমান্ত দিয়ে ভারতের একটি পতিতালয়ে বিক্রি করে দেন। সেখানে চার মাস থাকার পর এক বাংলাদেশির সহায়তায় বাড়ি ফিরে স্বামী হাবিবুর রহমান গাজীর বিরুদ্ধে মামলা করেন তিনি।

এ মামলায় পাঁচজনের সাক্ষ্যগ্রহণ ও নথি পর্যালোচনা করে আসামির বিরুদ্ধে আনা অভিযোগ প্রমাণ হওয়ায় এ রায় দেন আদালত।সাতক্ষীরা নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিশেষ পিপি অ্যাডভোকেট জহুরুল হায়দার বাবু জানান, আসামি হাবিবুর রহমান জামিনে মুক্তি পেয়ে বর্তমানে পলাতক রয়েছেন।

news portal website developers eCommerce Website Design