তাসফিয়া হত্যায় তৃতীয় পক্ষের ইন্ধন নিয়ে সন্দেহ পরিবারের

চট্টগ্রাম: চট্টগ্রামের স্কুলছাত্রী তাসফিয়া আমিন হত্যার সাথে তৃতীয় কোনো পক্ষের ইন্ধন রয়েছে বলে সন্দেহ প্রকাশ করেছেন তার বাবা মোহাম্মদ আমিন। সোমবার চট্টগ্রাম প্রেস ক্লাবে সংবাদ সম্মেলন করে তিনি এ দাবি করেন।

লিখিত বক্তব্যে মোহাম্মদ আমিন বলেন, তাসফিয়াকে কিছু চিহ্নিত নরপশু মধ্যযুগীয় কায়দায় নৃশংসভাবে হত্যা করেছে। এ হত্যাকাণ্ডে তৃতীয় কোনো পক্ষের ইন্ধন আছে কি না তা খতিয়ে দেখার জন্য প্রশাসনের প্রতি অনুরোধ করছি।

সংবাদ সম্মেলনের লিখিত বক্তব্যে তাসফিয়া মৃত্যু রহস্য উদঘাটনের জন্য প্রধানমন্ত্রীর দৃষ্টি আকর্ষণ করে মোহাম্মদ আমিন আরও বলেন, আপনি তো বুঝেন প্রিয়জন হারানোর বেদনা কতটা অবর্ণনীয়।

স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের করা ইয়াবা ব্যবসায়ীর তালিকায় তাসফিয়ার বাবা মোহাম্মদ আমিন ও চাচা নুরুল আমিনের নাম রয়েছে। এ প্রেক্ষিতে ইয়াবা ব্যবসার বিরোধ নিয়ে তাসফিয়াকে ‘হত্যা’ করা হয়েছে- এমন সন্দেহ করছেন কিনা এমন প্রশ্নের জবাবে আমিন বলেন, ‘টেকনাফের সবার নাম ওই তালিকায় আছে। কেউ ইয়াবা ব্যবসা করে, কেউ করে না। ঘটনা ধামাচাপা দিতে এ অভিযোগটি সামনে আনা হচ্ছে বলেও দাবি করেন মোহাম্মদ আমিন।

তাসফিয়ার পরিবারের অভিযোগের বিষয়ে চট্টগ্রাম মহানগর পুলিশের কর্ণফূলী জোনের সহকারি কমিশনার জাহেদুল ইসলাম বলেন, ‘মামলার তদন্তের স্বার্থে আমরা সব দিক খতিয়ে দেখছি।’

প্রসঙ্গত, গত ২ মে নগরীর পতেঙ্গা সৈকত এলাকা থেকে শানসাইন স্কুল এন্ড কলেজের নবম শ্রেণির ছাত্রী তাসফিয়া আমিনের লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। নিহতের পরিবারের অভিযোগ স্কুল ছাত্রীর ‘প্রেমিক’ নির্যাতনের পর হত্যা করে। এ ঘটনায় নিহতের বাবা মোহাম্মদ আমিন বাদী হয়ে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। মামলায় কথিত প্রেমিক আদনান মির্জাসহ ছয় জনকে আসামী করা হয়।

news portal website developers eCommerce Website Design
Close ads[X]