প্রাথমিকে ১২ হাজার সহকারী শিক্ষক নিয়োগ

primary

primaryঢাকা: দেশের সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়গুলোতে নতুন করে ১২ হাজার সহকারী শিক্ষক নিয়োগ দেওয়া হবে। আসছে জুনের শেষ দিকে এ নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হবে।

সম্প্রতি প্রাথমিক শিক্ষা অধিদফতরের (ডিপিই) এক সভায় এমন সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। ওই সভায় সভাপত্বিত করেন ডিপিই’র মহাপরিচালক আবু হেনা মোস্তফা কামাল।

ডিপিই সূত্রে জানা গেছে, সারাদেশে বর্তমানে সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় আছে ৬৪ হাজার ৮২০টি। এর মধ্যে প্রায় ২০ হাজার স্কুলে প্রধান শিক্ষক নেই। ২০ হাজারেরও বেশি সহকারী শিক্ষকের পদ শূন্য রয়েছে। এসব শূন্য পদ পূরণে রাজস্ব খাতে নতুন করে ১২ হাজার সহকারী শিক্ষক নিয়োগ দেওয়া হবে।

ডিপিই সূত্রে আরও জানা গেছে, চলমান শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষার মাধ্যমে ১০ হাজার শিক্ষক নিয়োগ দেওয়া হবে। নতুন করে আরও ১২ হাজার শিক্ষক নিয়োগ দিয়ে শূন্য পদ পূরণ করা হবে। নতুন নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি জুনের শেষের দিকে প্রকাশ করা হবে।

প্রাথমিক শিক্ষা অধিদফতরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক মো. রমজান আলী জানান, প্রাথমিক শিক্ষার মানোন্নয়নে বিভিন্ন উদ্যোগ নেওয়া হচ্ছে। তার মধ্যে প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক শূন্য পদগুলো পূরণে নতুন নিয়োগ কার্যক্রম রয়েছে। ২০১৪ সালের স্থগিত হওয়া ১০ হাজার সহকারী শিক্ষক নিয়োগ কার্যক্রমও চলছে।

আগামী জুলাইয়ের মধ্যে লিখিত ও মৌখিক পরীক্ষা শেষ করা হবে। এ নিয়োগ প্রক্রিয়া চলমান অবস্থায় রাজস্ব খাতে নতুন করে আরও ১২ হাজার সহকারী শিক্ষক নিয়োগ প্রক্রিয়া শুরু করা হবে বলেও জানান তিনি।

ডিপিই সূত্র জানায়, চতুর্থ প্রাথমিক শিক্ষা উন্নয়ন কর্মসূচির (পিইডিপি-৪) আওতায় রাজস্ব খাতে শূন্য শিক্ষক পদ, প্রয়োজন অনুযায়ী সৃষ্ট পদ, প্রাক-প্রাথমিক স্তর মিলিয়ে আগামী পাঁচ বছরের মধ্যে সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে দেড় লাখের বেশি শিক্ষক নিয়োগ দেওয়া হবে।

news portal website developers eCommerce Website Design
Close ads[X]