গৌরীপুরে থানায় ঢুকে এএসআইকে মারধর, আ’লীগ নেতা গ্রেফতার

hasanurjaman

hasanurjamanময়মনসিংহ: গৌরীপুর থানায় ঢুকে তিন মাদকাসক্ত আসামিকে ছাড়িয়ে নিতে তর্কে জড়িয়ে ডিউটি অফিসারকে মারধর করেছে আওয়ামী লীগ নেতা। এ ঘটনায় ওই আওয়ামী লীগ নেতাকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। এ ঘটনায় তার বিরুদ্ধে থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে।

হামলার শিকার এএসআই হাসানুজ্জামান গৌরীপুর থানায় কর্মরত।

অভিযুক্ত আওয়ামী লীগ নেতা রুকনুজ্জামান পল্লব উপজেলার গাভীশিমুল গ্রামের মুক্তিযোদ্ধা খালেদুজ্জামানের ছেলে ও ২নং গৌরীপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক। থানায় গ্রেফতারকৃতরা হলো, উপজেলার গজন্দর গ্রামের ফজলুল হকের ছেলে মাদকাসক্ত মনোয়ারুল সিফাত (১৯), আইন উদ্দিনের ছেলে মো. হাবিবুর রহমান (১৮) ও গাভীশিমুল গ্রামের বকুল মিয়ার ছেলে আবু হানিফ (১৮) গ্রেফতার করে নিয়ে আসে।

শনিবার দুপুরে গৌরীপুর থানায় এ হামলার ঘটনা ঘটে। এতে কর্তব্যরত ডিউটি অফিসার এএসআই হাসানুজ্জামান আহত হন।

আহত হাসানুজ্জামান জানান, দুপুরে হঠাৎ করে গৌরীপুর থানার কর্তব্যরত পুলিশ (ডিউটিরত পুলিশ) কক্ষে ছুটে আসেন উপজেলার ২নং গৌরীপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক রুকনুজ্জামান পল্লব। এ সময় তিনজন আসামিকে ছেড়ে দেয়ার নির্দেশ দেন। আসামি না ছাড়ায় কথাকাটাকাটির একপর্যায়ে পুলিশের পোশাকে ধরে টানাহেঁচড়া ও কিলঘুষি মারেন। আশপাশের লোকজন এসে আমাকে রক্ষা করেন।

এ ঘটনায় পুলিশ ২নং গৌরীপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক রুকনুজ্জামান পল্লবকে গ্রেফতার করেছে বলে নিশ্চিত করেন ওসি দেলোয়ার আহম্মদ।

তিনি জানান, হাসানুজ্জামান রাতে মাদকাসক্ত তিনজনকে গ্রেফতার করে নিয়ে আসেন।

তাদের বিরুদ্ধে একটি ও থানায় এসে পুলিশের ওপর হামলার ঘটনায় হাসানুজ্জামান বাদী হয়ে পৃথক ২টি মামলা দায়ের করেছে।

গৌরীপুর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) তারিকুজ্জামান জানান, গ্রেফতারকৃত রুকনুজ্জামান পল্লবকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ময়মনসিংহ জেলা গোয়েন্দা পুলিশ বিভাগে নেয়া হয়েছে।

উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বিধু ভূষণ দাস জানান, পল্লব পুলিশের সঙ্গে খারাপ আচরণ করেছে তা শুনেছি। আমরা বলেছি, অযথা যেন হয়রানি বা নির্যাতন না করা হয়।

news portal website developers eCommerce Website Design
Close ads[X]