কুষ্টিয়ায় বন্দুকযুদ্ধে মামা-ভাগ্নে নিহত

gunfight

gunfightকুষ্টিয়া: কুষ্টিয়ার মিরপুরে মাদকবিরোধী অভিযান চলাকালে র‌্যাবের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ ফুটু ওরফে মোন্না (৩৫) ও রাসেল আহম্মেদ (৩০) নামে দুই যুবক নিহত হয়েছেন।

র‌্যাবের দাবি, নিহতরা এলাকার দুই শীর্ষ মাদক ব্যবসায়ী। নিহত ফুটু ওরফে মোন্না কুষ্টিয়া শহরের রাজারহাট মোড় এলাকার মৃত আহম্মদ আলীর ছেলে ও রাসেল আহম্মেদ একই এলাকার রবিউল ইসলামের ছেলে। সম্পর্কে নিহত দুজন আপন মামা-ভাগ্নে। বন্দুকযুদ্ধে র‌্যাবের দুই সদস্য আহত হয়েছেন।

বুধবার ভোর ৫টার দিকে উপজেলার আমবাড়িয়া ইউনিয়নের বালুচরসংলগ্ন জোয়াদ্দারের ইটভাটার কাছে এ ‘বন্দুকযুদ্ধের’ ঘটনা ঘটে।

ঘটনাস্থল থেকে একটি বিদেশি নাইম এমএম পিস্তল, একটি দেশি ওয়ান শুটারগান, ২টি কার্তুজ, ১২ রাউন্ড গুলি, ৪০ লিটার চোলাই মদ, ১৫০০ পিস ইয়াবা ও ২৩০ বোতল ফেনসিডিল উদ্ধার করেছেন র‌্যাব সদস্যরা।

র‌্যাব-১২ এর কুষ্টিয়া কমান্ডার মোহাইমেনুর রশীদ জানান, ভোর ৫টার দিকে মিরপুর উপজেলার আমবাড়িয়া ইউনিয়নের জোয়াদ্দারের ইটভাটার কাছে মাদকদ্রব্য ক্রয়-বিক্রয়ের উদ্দেশ্যে একদল মাদক ব্যবসায়ী অবস্থান করছে এমন গোপন সংবাদ আসে। এর ভিত্তিতে র‌্যাবের একটি দল ঘটনাস্থলে অভিযান চালায়। র‌্যাবেরর উপস্থিতি টের পেয়ে মাদক ব্যবসায়ীরা তাদের ওপর গুলি চালায়। এ সময় র‌্যাবও পাল্টা গুলি করে।

একপর্যায়ে মাদক ব্যবসায়ীরা পিছু হটলে আহতাবস্থায় ফুটু ও রাসেল নামে দুই শীর্ষ মাদক ব্যবসায়ীকে উদ্ধার করে কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালে নেয়া হয়। সেখানে ভোর ৬টার দিকে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাদের মৃত ঘোষণা করেন।

নিহত ওই দুই মাদক ব্যবসায়ী স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়, মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদফতর ও এনএসআইয়ের তালিকাভুক্ত বলে জানান র‌্যাবের এ কর্মকর্তা।

news portal website developers eCommerce Website Design
Close ads[X]