বগুড়ায় ‘বন্দুকযুদ্ধে’ তুফান সরকারের ভাই নিহত

gun fight

gun fightবগুড়া: পুলিশের সঙ্গে কথিত বন্দুকযুদ্ধে আলোচিত শ্রমিক লীগ নেতা (বহিষ্কৃত) তুফান সরকারের বড় ভাই পতু মিয়া সরকার (৪৫) নিহত হয়েছেন। বৃহস্পতিবার গভীর রাতে বগুড়া শহরের ভাটকান্দী ব্রিজের কাছে বন্দুকযুদ্ধের এ ঘটনা ঘটে। পতু মিয়া শহরের চকসুত্রাপুর এলাকার মজিবর রহমানের ছেলে। পুলিশের দাবি, পতু সরকার শীর্ষস্থানীয় মাদক ব্যবসায়ী। তার বিরুদ্ধে থানায় ৫টি মামলা রয়েছে।

বগুড়া পুলিশ সুপার (এসপি) আলী আশরাফ ভুইঞা জানান, শহরের ভাটকান্দী ব্রিজের কাছে দু’দল দুষ্কৃতিকারী সংঘর্ষে লিপ্ত হয়েছে- এমন খবরে বনানী ফাঁড়ির ইনচার্জ ইন্সপেক্টর তারিকুলের নেতৃত্বে সদর থানার একদল পুলিশ অভিযানে যায়।

উপস্থিতি টের পেয়ে দুষ্কৃতিকারীরা পুলিশকে লক্ষ্য করে গুলি ছোড়ে। পুলিশও পাল্টা গুলি চালালে তারা পিছু হটে।

পরে ঘটনাস্থল থেকে গুরুতর আহত পতু মিয়াকে উদ্ধার করে শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ (শজিমেক) হাসপাতালের জরুরি বিভাগে নিলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

পতু মিয়ার বিরুদ্ধে সদর ও শিবগঞ্জ থানায় ৫টি মাদকের মামলা রয়েছে। তিনি পুলিশের তালিকাভুক্ত শীর্ষ মাদক ব্যবসায়ী।

ঘটনাস্থল থেকে একটি ওয়ান শুটার গান, একটি পাইপগান, ৮ রাউন্ড গুলি এবং ৫০০ পিস ইয়াবা উদ্ধার করা হয়েছে বলেও জানান পুলিশ সুপার।

উল্লেখ্য, পতু মিয়া সরকারের ভাই তুফান সরকার গতবছরের জুলাইতে এক কলেজছাত্রীকে ধর্ষণ করে মাসহ তার মাথা ন্যাড়া করে দেন। এ ঘটনা সে সময়ে সারাদেশে আলোচিত হয়।

পরে পুলিশ তুফান সরকার, তার স্ত্রীসহ ৯ জনকে গ্রেফতার করে। বর্তমানে তারা কারাগারে রয়েছেন।

news portal website developers eCommerce Website Design