‘মিয়ানমার অনেক বড় চ্যালেঞ্জের মুখে পড়েছে’

ঢাকা: অভিবাসন সংস্থার (আইওএম) মহাপরিচালক ল্যাসি সুইং বলেছেন, ‘মিয়ানমারের রাখাইনে রোহিঙ্গাদের প্রত্যাবাসনের জন্য এখনো সহায়ক পরিবেশ তৈরি হয়নি।’ তিনি বলেন, ‘মিয়ানমার অনেক বড় চ্যালেঞ্জের মুখে পড়েছে।’

আজ রোববার কক্সবাজারের উখিয়া কুতুপালং শরণার্থী ক্যাম্প পরিদর্শন শেষে আইওএমর মহাপরিচালক উইলিয়াম ল্যাসি সুইং সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন।

রোহিঙ্গাদের জন্য নিরাপদ, সম্মানজনক ও স্বেচ্ছামূলক প্রত্যাবাসনের পরিবেশ সৃষ্টি হতে যথেষ্ট সময় লাগবে বলেও মনে করেন ল্যাসি সুইং। তবে রোহিঙ্গাদের অধিকার ফিরে পাওয়া ও নিজ ঘরে ফিরে যাওয়ার জন্য যথেষ্ট ক্ষেত্র এরইমধ্যে তৈরি হয়েছে বলেও মনে করেন তিনি। এজন্য আনান কমিশনের রিপোর্ট, জাতিসংঘের সাথে মিয়ানমারের সমঝোতা স্মারক সইও বাংলাদেশ-মিয়ানমার চুক্তিকে রোহিঙ্গাদের প্রত্যাবাসনে অগ্রগতির ধাপ বলে উল্লেখ করেন তিনি। এ সময় জাতিসংঘের অন্যান্য সংস্থা ও আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের সাথে রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনে আওএমও সংযুক্ত থাকবে বলে জানান তিনি।

আইওএমের মহাপরিচালক এ সময় আরো বলেন, ‘এই মুহূর্তে সবচেয়ে বড় চ্যালেঞ্জ হচ্ছে চলতি বর্ষায় রোহিঙ্গাদের ঝুঁকি থেকে নিরাপদে রাখা। এ ক্ষেত্রে বাংলাদেশ সরকার ও স্থানীয় জনগণের সহযোগিতায় আন্তর্জাতিক সংস্থাগুলো কাজ করছে। রোহিঙ্গাদের কারণে স্থানীয় পাহাড়, পরিবেশ ও জনগণ যে ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে তা আন্তর্জাতিক সংস্থাগুলো গুরুত্বের সাথে দেখছে।’

ল্যাসি সুইং বলেন, ‘মিয়ানমার অনেক বড় চ্যালেঞ্জের মুখে পড়েছে।’ তিনি বিশ্বজুড়ে শান্তি প্রতিষ্ঠা ও পুনর্মিলনে আইওএমের সফলভাবে কাজ করার অভিজ্ঞতার কথা তুলে ধরেন। তিনি মিয়ানমারকেও এ ক্ষেত্রে সহযোগিতার প্রস্তাব দেন।

ল্যাসি সুইং আইওএমের ত্রাণ বিতরণ কেন্দ্র, শরণার্থীদের প্রশিক্ষণ কেন্দ্র, রোহিঙ্গাদের ক্যাম্প উন্নয়ন কাজ, স্বাস্থ্যসেবা কেন্দ্র পরিদর্শন করেন। এ সময় রোহিঙ্গা এবং স্থানীয় মা ও শিশুদের সঙ্গে কথা বলে তাদের চিকিৎসাসেবার খোঁজ-খবর নেন।

news portal website developers eCommerce Website Design
Close ads[X]