স্ত্রী ও মেডিকেল পড়ুয়া মেয়েকে ‘হত্যা’ করে ফাঁস নিলেন বাবা

গাজীপুর : গাজীপুর মহানগরের হায়দারাবাদ এলাকা থেকে স্বামী-স্ত্রী ও মেডিকেল পড়ুয়া মেয়ের লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। বৃহস্পতিবার বিকেল তিনটার দিকে ঘর থেকে মা-মেয়ের গলাকাটা এবং বারান্দা থেকে স্বামীর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করা হয়।

নিহতরা হলেন হায়দারাবাদ এলাকার আবুল হাশেমের ছেলে কামাল হোসেন (৪০), তার স্ত্রী নাজমা বেগম (৩৫) ও তাদের মেয়ে উত্তরা আধুনিক মেডিকেল কলেজের প্রথম বর্ষের ছাত্রী সানজিদা কামাল ওরফে রিমি (১৯)।

নিহত কামাল হোসেনের বড় ভাই দেলোয়ার হোসেনের স্ত্রী মাহমুদা পরিবর্তন ডটকমকে জানান, সন্তানকে স্কুলে দিয়ে সকাল সাড়ে ১০টার দিকে তিনি বাড়ি ফেরেন। এ সময় এগিয়ে গিয়ে গ্রিলের বারান্দায় কামাল হোসেনকে ঝুলতে দেখেন।

তার আর্তচিৎকারে আশপাশের লোকজন এসে কামাল হোসেনকে দড়ি থেকে নামান। পরে ঘরে প্রবেশ করে তার স্ত্রী নাজমা ও মেয়ে সানজিদার গলাকাটা লাশ দেখতে পান।

জয়দেবপুর থানার এসআই শফিকুল ইসলাম পরিবর্তন ডটকমকে জানান, মা-মেয়ের গলা ও পেট কাটা এবং শরীরের বিভিন্ন স্থানে ধারালো অস্ত্রের আঘাত রয়েছে।

পরে লাশগুলো উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য গাজীপুর শহীদ তাজউদ্দিন আহমদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে বলেও জানান তিনি।

গাজীপুরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোহাম্মদ রাসেল শেখ পরিবর্তন ডটকমকে জানান, প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে, ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে স্ত্রী-কন্যাকে হত্যার পর কামাল হোসেন নিজেও আত্মহত্যা করেছেন।

আত্মহত্যা, না এর সঙ্গে অন্য কিছু জড়িত রয়েছে কিনা তা তদন্ত করে দেখা হচ্ছে বলেও জানান তিনি।

news portal website developers eCommerce Website Design