চাঁদে ফিরছে নাসা

চাঁদে পুনরায় অভিযানে যাওয়ার প্রস্তুতি নিচ্ছে নাসা, চলতি সপ্তাহে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন মার্কিন ভাইস প্রেসিডেন্ট মাইক পেন্স।

বৃহস্পতিবার যুক্তরাষ্ট্রের হিউস্টনে নাসা’র জনসন স্পেস সেন্টারে কথা বলা সময় চাঁদে মানুষ পাঠানোর পরিকল্পনা জানিয়েছেন পেন্স।

ব্রিটিশ ট্যাবলয়েড মিররের প্রতিবেদনে বলা হয়, নাসার এই অভিযানের লক্ষ্য চাঁদের কক্ষপথে ছোট একটি মহাকাশ কেন্দ্রে নভোচারী পাঠানো। ২০২৪ সালের শুরুর দিকেই এই মহাকাশ কেন্দ্রটি চালুর পরিকল্পা রয়েছে মার্কিন মহাকাশ গবেষণা প্রতিষ্ঠানটির।

ভবিষ্যতে চাঁদের কক্ষপথের এই মহাকাশ কেন্দ্র চাঁদ এবং মঙ্গল গ্রহে নভোচারী প্রেরণের জন্য ব্যবহার করা হবে বলে প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে।

পেন্স বলেন, “যেহেতু আমাদের চোখ আবারও চাঁদের ওপর পড়েছে, এবার আমরা শুধু পদচিহ্ন রেখেই ফিরবো না বা কখনোই ফেলে আসবো না।”

পেন্স আরও নিশ্চিত করেছেন যে, এবার “চাঁদের বুকে স্থায়ী অস্তিত্ব প্রতিষ্ঠা করা হবে।”

প্রায় ৫০ বছর আগে ১৯৬৯ সালের ২০ জুলাই অ্যাপোলো ১১ অভিযানের মাধ্যমে প্রথমবারের মতো চাঁদের বুকে পা রাখে মানুষ।

অ্যাপোলো ১৭-এর পর চাঁদে আর কোনো মানব অভিযান পরিচালনা করা হয়নি। ১৯৭২ সালের ডিসেম্বর মাসে সর্বশেষ চন্দ্রাভিযান অ্যাপোলো ১৭ পরিচালনা করা হয়।

এর আগেও চাঁদের কক্ষপথে ছোট মহাকাশ কেন্দ্র স্থাপনের কথা জানিয়েছে নাসা। এবার বিষয়টি নিশ্চিত করলেন মার্কিন ভাইস প্রেসিডেন্ট।

পেন্স বলেন, “২০২৪ সাল পেরোনোর আগেই চাঁদের কক্ষপথের প্ল্যাটফর্মে একজন মার্কিন নভোচারী পাঠাতে আমাদের প্রশাসন অক্লান্ত পরিশ্রম করছে।

আগের বছর থেকেই মহাকাশ কেন্দ্রটির প্রোপালশন ব্যবস্থা তৈরি জন্য প্রস্তুতকারক প্রতিষ্ঠানগুলোর সঙ্গে কাজ শুরু করেছে নাসা। পুরো প্রকল্পটি শেষ করতে আরও ৫০ কোটি মার্কিন ডলার খরচ হবে বলে জানানো হয়েছে।

news portal website developers eCommerce Website Design