কুষ্টিয়ায় মায়ের কোলে বাসের ধাক্কায় আহত শিশুর মৃত্যু

kustia-accident
ছবি: সংগৃহীত

কুষ্টিয়া শহরে বাসের ধাক্কায় মায়ের কোল থেকে রাস্তায় ছিটকেপড়া এক বছরের শিশু আকিফার মৃত্যু হয়েছে।

বৃহস্পতিবার ভোরে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন তার মৃত্যু হয়। শিশু আকিফা কুষ্টিয়া শহরের চৌড়হাসের সবজি ব্যবসায়ী হারুন-উর রশিদের মেয়ে।

বাবা হারুন-উর রশিদ জানান, মাঝ রাত থেকে আকিফার শারীরিক অবস্থার অবনতি হয়। ফজরের আজানের সময় আকিফার মৃত্যু হয়। ছোট্ট আকিফার জন্য দেশবাসীর কাছে দোয়া চেয়েছেন তিনি।

জানা যায়, কুষ্টিয়া শহরের চৌড়হাস মোড়ে দাঁড়িয়ে থাকা বাসের সামনে দিয়ে শিশু আকিফাকে কোলে নিয়ে হেঁটে যাচ্ছিলেন মা রিনা বেগম। হঠাৎ চালক বাসটি চালিয়ে রিনা বেগমকে পেছন থেকে ধাক্কা দেয়। এতে তার কোল থেকে রাস্তায় ছিটকে পড়ে গুরুতর আহত হয় শিশু আকিফা।

মঙ্গলবার দুপুরে এমন দুর্ঘটনার ভিডিওচিত্র ফেসবুকে ভাইরাল হলে তোলপাড় সৃষ্টি হয় জেলাজুড়ে। ফরিদপুর থেকে রাজশাহীগামী গঞ্জেরাজ নামে বাসটি দ্রুত পালিয়ে যায়।

পরে স্থানীয়রা মা-মেয়েকে উদ্ধার করে কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে যান। সেখানে শিশুটির অবস্থার অবনতি হওয়ায় তাকে সন্ধ্যায় উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকায় পাঠানো হয়। এদিকে দোষী বাসচালকের শাস্তির দাবিতে বুধবার বেলা ১১টায় চৌড়হাস মোড়ে কয়েক হাজার মানুষ ও স্কুলশিক্ষার্থীরা মানববন্ধন করেন। কুষ্টিয়া জেলা পুলিশের সিসি ক্যামেরায় দেখা গেছে, এক নারী তার শিশুকে বুকে আগলে দাঁড়িয়ে থাকা একটি বাসের সামনে দিয়ে হেঁটে যাচ্ছিলেন। এরই মধ্যে দাঁড়িয়ে থাকা বাসটি কোনো হর্ন না বাজিয়েই পথচারী মাকে ধাক্কা দেয়। এতে মায়ের কোল থেকে শিশুটি ছিটকে রাস্তায় পড়ে যায়। বাসের ধাক্কায় আহত হন শিশু ও মা।

শিশুটিকে উদ্ধারকারী শ্রমিক নেতা রাসেল জানান, বাসটি মা-মেয়েকে ধাক্কা দেয়ার সময় বাসের যাত্রীরাই চিৎকার দিয়ে ওঠেন। তবে কোনো কিছুর তোয়াক্কা না করে ধাক্কা দিয়ে দ্রুত বাসটি চলে যায়। এ সময় অন্যরা বাসটিকে ধাওয়া করেও আটকাতে ব্যর্থ হয়।

কুষ্টিয়া নিরাপদ সড়ক চাই আন্দোলনের সভাপতি কেএম জাহিদ জানান, অদক্ষ চালকের কারণেই সড়কে ঘটে চলেছে এমন দুর্ঘটনা। এখনই সংশ্লিষ্ট বিভাগকে এর লাগাম টেনে না ধরলে আরও ভয়াবহ দুর্ঘটনা ঘটতে থাকবে।

news portal website developers eCommerce Website Design
Close ads[X]