বিএনপির প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর জনসভা বিকালে

By ওয়ান নিউজ বিডি

September 01, 2018

বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল বিএনপির ৪০তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালিত হচ্ছে আজ শনিবার। এ উপলক্ষে বিকালে নয়াপল্টনে দলীয় কার্যালয়ের সামনে জনসভা করবে বিএনপি। ইতোমধ্যে ডিএমপির লিখিত অনুমতি পেয়েছে দলটি।

প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে বিএনপির পক্ষ থেকে নয়াপল্টনে অথবা ঢাকার সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে জনসভা করার অনুমতি চেয়ে পুলিশসহ সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ বরাবর আবেদন জানিয়েছিল।

এ বিষয়ে ২৯ আগস্ট বিএনপির তিন সদস্যের প্রতিনিধি দল ঢাকা মহানগর পুলিশ কমিশনারের সঙ্গে দেখা করেন। তখন পুলিশ কমিশনার প্রতিনিধি দলকে মৌখিকভাবে নয়াপল্টনে জনসভা করার অনুমতি দেন বলে রুহুল কবির রিজভী সংবাদ সম্মেলনে জানান। পরে শুক্রবার বিকালে বিএনপিকে শর্তসাপেক্ষে লিখিত অনুমতি দেয় বিএনপি।

ডিএমপি সূত্রে জানা গেছে, ২৩ শর্তে পুলিশ জনসভার অনুমতি দিয়েছে। শর্তের মধ্যে আছে- জনসভা শুরুর নির্ধারিত সময়ের আগে নেতাকর্মীদের সমবেত না হওয়া, বিকাল সাড়ে ৫টার মধ্যে জনসভা শেষ করা, জনসভাস্থলে লাঠি-সোটা নিয়ে না আসা, জনসভার জন্য নির্ধারিত সীমানার বাইরে নেতাকর্মীদের সমবেত না হওয়া ইত্যাদি।

দলের ৪০তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে বিএনপি দুই দিনের কর্মসূচি হাতে নিয়েছে।

গত মঙ্গলবার নয়াপল্টনের কার্যালয়ে দলের অঙ্গসংগঠনের যৌথসভায় প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর কর্মসূচি চূড়ান্ত করা হয়।

প্রথমদিনের অন্য কর্মসূচি হচ্ছে ভোরে নয়াপল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয় ও গুলশানে চেয়ারপারসনের কার্যালয়ে দলীয় পতাকা উত্তোলন এবং দলের প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমানের কবরে শ্রদ্ধা নিবেদন।

পরদিন বিকাল ৩টায় রমনা ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশন মিলনায়তনে রাখা হয়েছে আলোচনা সভা। এছাড়া প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে বিএনপি ও অঙ্গসংগঠনের পক্ষ থেকে পোস্টার প্রকাশ করা হয়েছে।

দেশের অন্যতম বৃহৎ এই রাজনৈতিক দলটি কঠিন সময়ে ৪০তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালন করছে। প্রায় ১২ বছর ধরে ক্ষমতার বাইরে থাকা দলটি অনেকটা বিপর্যস্ত। এর আগে এতটা দুর্দিনে কখনও পড়েনি কয়েকবার ক্ষমতায় আসা দলটি। ৪০ প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালনকালে দলের চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া দুর্নীতি মামলায় দণ্ডিত হয়ে কারাগারে আছেন। আর ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানও প্রায় ১০ বছর ধরে লন্ডনে নির্বাসিত।

২০১৪ সালের নির্বাচন বর্জন করা দলটি এখন অনেকটা অস্তিত্ব সংকটে। দলটির নেতাকর্মীরা জাতীয় নির্বাচনকে সামনে রেখে ঘুরে দাঁড়ানোর স্বপ্ন দেখলেও বিএনপি এখনও নির্বাচনে যাবে কি না তা ঘোষণা করতে পারেনি।