৫-১০ টাকার ওষুধেই সারবে ক্যান্সার!

বর্তমান বিশ্বের এক আতঙ্ক ক্যান্সার রোগ। এখন পর্যন্ত ক্যান্সারে মৃত্যুর হার অনেক বেশি। তবে এটি অনিরাময়যোগ্য নয়। প্রাথমিক অবস্থায় ধরা পরলে এই রোগ সারানোর সম্ভাবনা অনেকাংশ বেড়ে যায়।

কিন্তু এখনবধি ক্যান্সারের চিকিৎসা ব্যয়বহুল। উন্নয়নশীল দেশে এ রোগে বিনা চিকিৎসায় মৃত্যুমুখে পতিত হচ্ছে অসংখ্য মানুষ।

এ কারণে ক্যান্সার নিয়ে প্রচুর গবেষণা হচ্ছে এবং এর চিকিৎসা খরচ কমিয়ে আনার জন্য চেষ্টা করছে আধুনিক চিকিৎসা বিজ্ঞান।

সম্প্রতি আশার বাণী শুনিয়েছেন ইতালির এক গবেষক তুলিও সিমোনসিনি। তার দাবি অনুযায়ী, মাত্র ৫ থেকে ১০ টাকা মূল্যের নিত্যপ্রয়োজনীয় ঘরোয়া উপাদানেই সেরে উঠবে ক্যান্সার। আর সে উপাদানটি হলো খাবার সোডা অর্থাৎ বেকিং সোডা।

সিমোনসিনি তার লেখা ‘ক্যান্সার ইজ অ্যা ফাঙ্গাস: অ্যা রিভল্যুশন ইন টিউমার থেরাপি’ বইয়ে বেকিং সোডার সাহায্যে ক্যান্সারাক্রান্ত অনেক রোগীর চিকিৎসা করেছেন বলে দাবি করেছেন।

এখন পর্যন্ত ২০০ ধরনের ক্যান্সারের সন্ধান পাওয়া গেছে। আর বেকিং সোডা ব্যবহার করে সব ধরনের ক্যান্সারকে মাত্র ১০ দিনের মধ্যেই নিয়ন্ত্রণে আনা যেতে পারে বলে জানান সিমোনসিনি।

বিগত ২০ বছরেরও বেশি সময় চিকিৎসা করছেন সিমোনসিনি। তিনি এমন অনেক ক্যান্সার রোগী পেয়েছেন, যাদের সুস্থ হয়ে ওঠার বিষয়ে অধিকাংশ চিকিৎসকই হাল ছেড়ে দিয়েছিলেন। এই বেকিং সোডা ব্যবহারে সেসব মৃত্যুপথযাত্রীদের সারিয়ে তুলেছেন বলে দাবি করেন সিমোনসিনি।

ক্যান্সার আসলে কী ও কেন বেকিং সোডা এ রোগের নিয়ামক তার ব্যাখ্যায় সিমোনসিনি বলেন, ক্যান্সার এমন একটি আলসার যেখানে বিকৃত কোষগুলো জমা হয়ে শরীরের ভেতরেই আলাদা একটা বসতি গড়ে তোলে।

আর সে হিসেবে ত্বকের ক্যান্সারের বিরুদ্ধে সবচেয়ে ভাল উপাদান হল বেকিং সোডা এবং টিংচার আয়োডিন।

গবেষক সিমোনসিনির এ তথ্য-উপাত্তে এখনো অন্য কোনো গবেষকদের মতামত না পাওয়া গেলেও বেকিং সোডা যে ক্যান্সারের বিরুদ্ধে অন্তঃকোষীয় কার্যসাধনে সক্ষম সে বিষয়ে নিশ্চিত হয়েছেন তারা।

news portal website developers eCommerce Website Design
Close ads[X]