পাকিস্তানে সহায়তা বাতিল করল মার্কিন সেনাবাহিনী

পাকিস্তানে ৩০০ মিলিয়ন ডলার আর্থিক সহায়তা বাতিলের ঘোষণা দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্রের সেনাবাহিনী। তারা জানিয়েছে, জঙ্গি গোষ্ঠীর বিরুদ্ধে পদক্ষেপ নিতে ব্যর্থ হওয়ায় পাকিস্তানের বিরুদ্ধে এ ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে।

এর আগে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প পাকিস্তানের বিরুদ্ধে প্রতারণার মাধ্যমে বিলিয়ন বিলিয়ন মার্কিন ডলার গ্রহণের অভিযোগ আনেন।

পেন্টাগনের মুখপাত্র লেফটেন্যান্ট কর্নেল কোন ফকনার জানিয়েছেন, পাকিস্তানের জন্য বরাদ্দকৃত ৩০০ মিলিয়ন ডলার যুক্তরাষ্ট্রের সেনাবাহিনী অন্য ‘জরুরি অগ্রাধিকারগুলোতে’ ব্যয় করবে।

মার্কিন সেনাবাহিনীর এই পদক্ষেপ এখন কংগ্রেস কর্তৃক অনুমোদিত হতে হবে।

গত জানুয়ারিতে পাকিস্তানে সহায়তা বাতিলের যে বৃহত্তর ঘোষণা এসেছিল, এটি তারই একটি অংশ। গত জানুয়ারিতে যুক্তরাষ্ট্রের সরকার ঘোষণা দিয়েছিল যে, তারা পাকিস্তানে সব ধরনের নিরাপত্তা সহায়তা বাতিল করতে যাচ্ছে।

পাকিস্তানের গুরুত্বপূর্ণ মৈত্রী যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের অভিযোগ, পাকিস্তান তাদের মাটিতে পরিচালিত হাক্কানি নেটওয়ার্ক ও আফগান তালেবানসহ অন্যান্য সন্ত্রাসী নেটওয়ার্কগুলোর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে ব্যর্থ হয়েছে।

কর্নেল ফকনার শনিবার এক বিবৃতিতে বলেন, ‘সব সন্ত্রাসী গ্রুপকে নির্বিচার লক্ষ্যে পরিণত করতে আমরা পাকিস্তানকে এখনো চাপ দিয়ে যাচ্ছি।’

তিনি বলেন, ‘এই ৩০০ মিলিয়ন ডলার অন্যত্র ব্যয় করা হবে। পাকিস্তান কার্যকর পদক্ষেপ নিতে ব্যর্থ হওয়ায় আমরা এ ব্যবস্থা নিয়েছি।’

যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাইক পম্পেও পাকিস্তানের নতুন প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের সাথে দেখা করতে যাওয়ার মাত্র কয়েকদিন আগে ৩০০ মিলিয়ন ডলার সহায়তা বাতিলের এ ঘোষণা এলো।

তথ্য : বিবিসি

news portal website developers eCommerce Website Design