টিআইবির রিপোর্ট নিয়ে পুলিশের কমিটি

আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী সবচেয়ে দুর্নীতিগ্রস্ত বলে আন্তর্জাতিক দুর্নীতিবিরোধী সংস্থার বাংলাদেশ শাখা টিআইবির প্রতিবেদনের তথ্য খতিয়ে দেখতে একটি কমিটি করেছে পুলিশ সদর দপ্তর।

বাহিনীটির মহাপরিদর্শক (আইজিপি) জাবেদ পাটোয়ারী শনিবার দুপুরে রাজধানীর মিরপুরে পুলিশ স্টাফ কলেজের কনভেনশন হলে আয়োজিত এক অনুষ্ঠান শেষে সাংবাদিকদের এ কথা জানান।

সম্প্রতি সরকারি সেবা সংস্থার ওপর এক জরিপ প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে টিআইবি। যাতে বলা হয়, আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর কাছেই সেবাগ্রহীতারা সবচেয়ে বেশি দুর্নীতির শিকার হয়। ৭২ দশমিক ২ শতাংশ সেবাগ্রহীতাই দুর্নীতির শিকার হয়েছেন বলে জানান।

এ বিষয়ে জাবেদ পাটোয়ারী বলেন, ‘টিআইবির রিপোর্ট আমি পুরোটা দেখিনি। গণমাধ্যমে যতটুকু এসেছে, তাই দেখেছি। এ বিষয়ে পুলিশ সদর দপ্তর থেকে একটি কমিটি করে দেয়া হয়েছে। কমিটি (টিআইবি) প্রতিবেদনটি কীভাবে করা হয়েছে, কার সঙ্গে কথা বলেছে এগুলো দেখবে। এর আগে এ বিষয়ে বিস্তারিত মন্তব্য করা ঠিক হবে না।’

অপর এক প্রশ্নে নির্বাচনকে সামনে রেখে আন্দোলনের নামে কোনও ধরনের হুমকি বরদাশত করা হবে না জানিয়ে পুলিশ প্রধান বলেন, যে কোনও ধরনের অরাজকতা-নাশকতা কঠোর হাতে দমন করা হবে।’

‘নির্বাচনকে সামনে রেখে যেন কোনও ধরনের অরাজকতা-নাশকতা না হয় সেজন্য আমাদের যথাযথ প্রস্তুতি রয়েছে। আন্দোলনের নামে কোনও হুমকি বা দেশকে অস্থিতিশীল করার কোনো কার্যক্রম বরদাশত করবো না, কঠোর হাতে দমন করা হবে।’

নির্বাচনকে সামনে রেখে বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের নেতা-কর্মীকে গ্রেপ্তারের বিষয়ে জানতে চাইলে আইজিপি বলেন, ‘গ্রেপ্তারের সঙ্গে নির্বাচন বা নেতাকর্মীর বিষয়টি সংশ্লিষ্ট নয়। আমরা কখনোই কোনও নেতা-কর্মীকে গ্রেপ্তার করি না। কোনও মামলার আসামি বা যাদের বিরুদ্ধে ওয়ারেন্ট রয়েছে তাদেরকেই গ্রেপ্তার করি। তার কি পরিচয় সেটা দেখি না।’

দেশজুড়ে এসএসসি পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হওয়া পুলিশ সদস্যদের ৩৬১জন সন্তানকে বৃত্তি দেয়া হয় অনুষ্ঠানে। এ সময় শিক্ষার্থীদের হাতে সনদ, ক্রেস্ট ও নগদ ১৫ হাজার টাকা তুলে দেন আইজিপি।

অনুষ্ঠানে ডিএমপি কমিশনার আছাদুজ্জামান মিয়া, অতিরিক্ত আইজিপি মহসিন হোসেনসহ পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

news portal website developers eCommerce Website Design
Close ads[X]