slide

তামিম-রুবেলকে রেখেই এশিয়া কাপে যাত্রা

By ওয়ান নিউজ বিডি

September 10, 2018

সংযুক্ত আরব আমিরাতের উদ্দেশ্যে গতকাল দেশ ছাড়ে মাশরাফি বিন মুর্তজার বাংলাদেশ দল। তবে, দলের সঙ্গে যেতে পারেননি দেশসেরা ওপেনার তামিম ইকবাল। হাতে খানিকটা ইনজুরিতো ছিলই- সেই সঙ্গে ভিসাও মেলেনি। তবে জানা যায়, আজ কালের মধ্যেই দুবাইয়ের উদ্দেশ্যে দেশ ছাড়বেন তামিম। ভিসার কারণে যেতে পারেননি দলের পেসার রুবেল হোসেন ম্যানেজার খালেদ মাহমুদ সুজন ও প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদিন নান্নুও। তারাও দুই একদিনের মধ্যে যোগ দেবেন দলের সঙ্গে। এছাড়াও সহ-অধিনায়ক সাকিব আল হাসান যুক্তরাষ্ট্র থেকে সরাসরি দুবাই যাবেন। ১৫ই সেপ্টেম্বর উদ্বোধনী দিনে টাইগারদের শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে শুরু হবে মাঠের লড়াই।

তবে, দেশ ছাড়ার আগে দলের ওপর পড়েছে ইনজুরির কালো ছায়া। সাকিবতো ইনজুরিতে ছিলেনই, এর সঙ্গে যোগ হয় শান্ত ও তামিম। যে কারণে ছড়িয়েছে কিছু শঙ্কার মেঘও। যদিও প্রধান নির্বাচক তা মানতে নারাজ। স্পষ্ট করেই জানিয়ে দিলেন, দল ফিট আছে। সবাই ভালোভাবেই উপযুক্ত আছেন খেলার জন্য। আর যেটুকু ইনজুরি তাতে বড় কোনো প্রভাবই পড়বে না। তিনি বলেন, ‘আমি স্পষ্ট করেই বলতে চাই যে দল সম্পূর্ণ ফিট আছে। সাকিব, তামিম ও শান্তর ইনজুুরি নিয়ে বড় ধরনের চিন্তার কিছু নেই। আশা করি দলের সবাই শতভাগ দিয়েই পারফরমেন্স করবে।’

কেন দলের সঙ্গে যেতে পারেননি তা নিয়ে মিনহাজুল আবেদিন জানান, ‘শুধু আমিই নই, ম্যানেজার সুজন, তামিম ও রুবেলের ভিসা এখনো আসেনি। যে কারণে আমাদের যেতে একটু বিলম্ব হচ্ছে। আশা করি আগামীকালই আমরা ভিসা পেয়ে যাব। এ নিয়ে চিন্তিত হওয়ার কিছু নেই।’ তবে, ওয়েস্ট ইন্ডিজে টি-টোয়েন্টি লীগ খেলে দেশে ফিরে দলের সঙ্গে বিমানে চেপেছেন মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ। কাল থেকে তারা দুবাইয়ে শুরু করবেন আনুষ্ঠানিক অনুশীলন। শুরুতে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি) ঘোষণা করে ১৫ সদস্যের দল। কিন্তু তরুণ ব্যাটসম্যান নাজমুল হোসেন শান্ত ও তামিম ইকবাল ইনজুরিতে পড়ায় দলে ডাকা হয় মুমিনুল হক সৌরভকে। গতকাল দেশ ছাড়েন দলের ১৩ ক্রিকেটার। এছাড়াও দলের সঙ্গে গেছেন নয়া কোচ স্টিভ রোডস, বোলিং কোচ কোর্টনি ওয়ালশ, ব্যাটিং পরামর্শক নিল ম্যাকেঞ্জি, ট্রেনার মারিও ভিল্লাভারায়নসহ ফিজিও ও অন্য কোচিং স্টাফরা। দলের ইনজুরি নিয়ে খুব বেশি চিন্তিত নন বিসিবির চিকিৎসক দেবাশিষ চৌধুরীও। তামিম ইকবালের বর্তমান অবস্থা নিয়ে তিনি বলেন, ‘আমরা ওকে যতটা দেখেছি তাতে মনে হচ্ছে খেলতে সমস্যা হওয়ার কথা নয়। যতটুকু ব্যথা আছে তা ধীরে ধীরে সেরে যাবে। তবে, ওকে আমরা পরামর্শ দিয়েছি যদি ব্যথা বাড়ে সেই ক্ষেত্রে একটি স্ক্যান করাতে। সাকিব আল হাসানের অবস্থাতো আগেই জানানো হয়েছে। ও নিজে খেলার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। তার মানে সে খেলতে পারার ব্যাপারে আত্মবিশ্বাসী।’

এছাড়াও রুবেলের জ্বর ও শান্তর ইনজুরি নিয়ে চিকিৎসক বলেন, ‘রুবেলের একটু জ্বরের সমস্যা ছিল কিন্তু এখন নেই। আর শান্তর এখনো কিছুটা ব্যথা থাকলেও দুই একদিনেই কমে যাবে বলেই বিশ্বাস করি। আমি আশা করছি আসর শুরুর আগে সবাই ফিট থাকবে যদি নতুন করে কোনো ঘটনা না ঘটে।’