slide

ব্রাজিল ৬-০তে জিতবে, আর্জেন্টিনা ০-২তে হারবে!

By ওয়ান নিউজ বিডি

September 11, 2018

না, চমকে উঠার কিছু নেই। নিশ্চিত বিশ্বাস করারও দরকার নেই। এটা কেবলই ফুটবলবোদ্ধাদের ভবিষ্যদ্বাণী মাত্র। আগামীকাল বুধবার ভোরে আন্তর্জাতিক প্রীতি ম্যাচে আলাদা আলাদা প্রতিপক্ষের মুখোমুখি হতে যাচ্ছে ব্রাজিল ও আর্জেন্টিনা। যুক্তরাষ্ট্রের নিউ জার্সির মেটলাইফ স্টেডিয়ামে আর্জেন্টিনার প্রতিপক্ষ কলম্বিয়া। মেরিল্যান্ডে ব্রাজিল মুখোমুখি হবে এল সালভাদরের। প্রতিপক্ষদের মান এবং দলীয় শক্তিমত্তা বিবেচনা করেই ফুটবলবোদ্ধাদের ভবিষ্যদ্বাণী, ব্রাজিল ৬-০ গোলে জিতবে। আর্জেন্টিনা ০-২ গোলে হারবে!

মানে বুধবার মেরিল্যান্ডে এল সালভাদরের বিপক্ষে গোল উসবে মেতে উঠবেন নেইমার-কুতিনহো-ফিরমিনোরা। অন্যদিকে নিউ জার্সির মেটলাইফে মেসিবিহিন ‘নতুন’ আর্জেন্টিনাকে দিতে হবে অগ্নি-পরীক্ষা। ফুটবলবোদ্ধাদের এঁকে দেওয়া জয়ের ছকটা নাও মিলতে পারে। তবে এটা স্পষ্ট যে, বুধবার ব্রাজিলের লড়াইটা হবে অতি সহজ, আর্জেন্টিনার লড়াইটা হবে ততটাই কঠিন।

প্রতিটা ফুটবল ম্যাচ নিয়েই বোদ্ধারা ভবিষ্যদ্বাণী করেন। তবে জয়ের ব্যবধান এঁকে দেওয়ার দৃষ্টতা খুব কমই দেখান। কিন্তু এবার ব্রাজিল ও আর্জেন্টিনা নিয়ে সেই দৃষ্টতা দেখিয়েছেন প্রতিপক্ষের সামর্থ পরিমাপ করেই।

মধ্য আমেরিকার ছোট্ট দেশ এল সালভাদর বিশ্ব ফুটবল মানচিত্রে খুবই ছোট্ট একটা তারকা। ৫ বারের বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন ব্রাজিলের সঙ্গে এই এল সালভাদরের লড়াইটার সঙ্গে ‘দৈত্য গ্যালিভারের সঙ্গে পুঁচটে লিলিপুটের লড়াই’ তকমাটাও ঠিক মানানসই নয়। দৈত্য ব্রাজিলের সামনে পুঁচকে এল সালভাদর আসলে পুঁচকের চেয়েও ছোট।

এমন অসম শক্তির দুই দলের লড়াইয়ে নেইমার-কুতিনহোরা গোল উৎসবে মেতে উঠবেন, সেটা অনুমিতই। ৫ বারের বিশ্ব চ্যাম্পিয়নরা যদি জিততে না পারে, তা হবে বিশ্ব ফুটবল ইতিহাসের সবচেয়ে বড় অঘটন। নেইমার, কুতিনহো, ফিরমিনো, ডগলাস কস্তারা নিশ্চয় সেই লজ্জার মুখোমুখি হতে চাইবে না।

ইতিহাসও ব্রাজিলের বড় জয়ের স্বাক্ষই দিচ্ছে। এল সালভাদের বিপক্ষে এর আগে দুটি ম্যাচ খেলেছে ব্রাজিল। ১৯৯৪ ও ১৯৯৮ সালে খেলা সেই দুটি ম্যাচেই ব্রাজিল জিতেছে সমান ৪-০ গোলে। ফুটবলবোদ্ধারা এবার ম্যাচ শুরুর আগেই ব্রাজিলকে তার চেয়েও দুটি বেশি গোল দেওয়ার কারণ, এল সালভাদরের সাম্প্রতিক পারফরম্যান্স খুবই হতাশাজনক।

রোববার কনক্যাকাফ নেশন্স লিগে মন্টসেরাত নামের অতি পুঁচকে দলের বিপক্ষেও জিততে সংগ্রাম করতে হয়েছে তাদের। কঠোর সংগ্রামের পর শেষ পর্যন্ত ২-১ গোলের জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে এল সালভাদর। বিপরীতে ব্রাজিলের এই দলটি নিশ্চিতভাবেই বিশ্বের সবচেয়ে বেশি প্রতিভাবান। নেইমার, কুতিনহো, ফিরমিনো, কস্তা-এদের প্রত্যেকেই নামের সঙ্গেই জুড়ে গেছে তারকাখ্যাতি।

এদের সঙ্গে আছেন আর্থার, রিচার্লিশনদের মতো তরুণ প্রতিভাবারাও। সব মিলে ব্রাজিল সালভাদরের জালে গোলেল বান বইয়ে দেবে, এমনটাই মনে করছেন ফুটবলপ্রেমীরা।

ব্রাজিলিয়ান দর্শকদের এই আগাম সুসংবাদ দিতে গিয়ে আর্জেন্টাইন সমর্ধকদের হারের হতাশার খবর দেওয়ার কারণটাও স্পষ্ট। বিশ্বকাপ ব্যর্থতার পর আর্জেন্টিনা সম্পর্ণ নতুন করে পথ চলার শপথ নিয়েছে। সেই লক্ষ্যেই দল গঠন করেছেন অন্তর্বর্তী কোচ লিওনেল স্কালোনি। অধিনায়ক লিওনেল মেসি ‘বিশ্রাম’ নিয়েছেন। তার সঙ্গে স্কালোনি দলে রাখেননি সার্জিও আগুয়েরো, গঞ্জালো হিগুয়েইন, অ্যাঙ্গেল ডি মারিয়াদের মতো তারকাদের।

সিনিয়রদের বাদ দিয়ে দল গড়েছেন তরুণদের নিয়ে। মেসি-আগুয়েরা-হিগুয়েইন-ডি মারিয়াদের জায়গায় আর্জেন্টিনার আক্রমণভাগে আছেন পাওলেঅ দিবালা, মার্টিনেস, সিমিওনে, লো সেলসোরা।। তরুণ এই দলটি অবশ্য শুরুটাও করেছে দারুণ। গত শনিবার নতুন মিশনের প্রথম প্রীতি ম্যাচে গুয়েতেমালাকে হারিয়েছে ৩-০ গোলে। কিন্তু যতই সম্ভাবনারিইঙ্গিত জাগিয়ে শুরু করুক, স্কালোনির তরুণ দলটির ভবিষ্যত সত্যিই উজ্জ্বল কিনা সেই পরীক্ষাটা হয়ে যাবে কাল বুধবার।

কলম্বিয়া এমনিতেই শক্ত প্রতিপক্ষ। ২০১৮ রাশিয়া বিশ্বকাপেও আর্জেন্টিনার সঙ্গে তারা উঠেছিল দ্বিতীয় রাউন্ডে। কাল কলম্বিয়া পূর্ণ শক্তির দল নিয়েই নামছে মাঠে। রাফামেল ফ্যালকাও, হামেশ রদ্রিগেজ, হুয়ান কুয়াদরাদো-প্রতিষ্ঠিত সব তারকাই আছেন দলে। সব কিছু বিবেচনা করেই তাই বোদ্ধাদের ভবিষ্যদ্বাণী মেটলাইফে বুধবারের ম্যাচের ফল হবে-কলম্বিয়া ২ : ০ আর্জেন্টিনা!

বোদ্ধাদের এই ভবিষ্যদ্বাণীকে মিথ্যে প্রমাণ করার দায়িত্বটা দিবালা-মার্টিনেজ-সিমিওনে-লো সেলসোদের। শনিবার জাতীয় দলের হয়ে অভিষেকেই গোল করেছেন মার্টিনেজ ও সিমিওনে। সেদিন আন্তর্জাতিক ক্যারিয়ারের প্রথম গোল করেছেন লো সেলসোও। গোলের সেই ধারাটা ধরে রাখতে পারলেই বোদ্ধাদের ভবিষ্যদ্বাণীটা মিথ্যে প্রমাণ করতে পারবেন তারা। তাহলে সমর্থকদের মুখেও ফোটাতে পারবেন হাসি।

দিবালা-মার্টিনেজ-সিমিওনেরা পারবেন বোদ্ধাদের ভবিষ্যদ্বাণীটা উল্টে দিয়ে তাদের মিথ্যা প্রমাণ করতে?

উল্লেখ্য, বুধবার আর্জেন্টিনা-কলম্বিয়ার ম্যাচটি শুরু হবে বাংলাদেশ সময় ভোর টায়। ব্রাজিল-এল সালভাদরের ম্যাচটি শুরু হবে সাড়ে ৬টায়।